২ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ২০ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কোপা আমেরিকায় বারবার বিতর্কিত মন্তব্যের জের। আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে দু’বছরের জন্য নির্বাসিত হতে পারেন লিওনেল মেসি। এমনটাই দাবি, স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যমের। কোপার সেমিফাইনালে হারের পর প্রথমবার রেফারির বিরুদ্ধে মুখ খুলেছিলেন মেসি। তৃতীয় স্থান দখলের ম্যাচে লাল কার্ড দেখার পর সুর আরও চড়ান তিনি। কোপা আমেরিকা কর্তৃপক্ষকে রীতিমতো দুর্নীতিগ্রস্ত বলে দাবি করেছিলেন লিও। সূত্রের খবর, মেসির সেই মন্তব্য একেবারেই ভালভাবে নেয়নি দক্ষিণ আমেরিকার ফুটবল ফেডারেশন।

[আরও পড়ুন: ইতিহাসে অ্যালভেস, এক যুগ পর লাতিন আমেরিকার সেরা ব্রাজিল]

কোপার সেমিফাইনালে ব্রাজিলের কাছে হারের পর মেসি দাবি করেছিলেন, রেফারি অনৈতিকভাবে সুবিধা পাইয়ে দিয়েছেন আয়োজক দেশকে। তারপর তৃতীয় স্থান দখলের ম্যাচে তাঁকে লাল কার্ড দেখানো হয়। ম্যাচ শেষে আর্জেন্টিনার অধিনায়ক স্পষ্ট বলেন, “এবারের কোপায় আমাদের সঙ্গে অন্যায় করা হয়েছে। আমরা ফাইনালে যেতে পারতাম, অন্যায়ভাবে আটকে দেওয়া হয়েছে। এই দুর্নীতিতে আমরা অংশগ্রহণ করতে চাই না। ব্রাজিল যাতে কোপা জিততে পারে তা নিশ্চিত করতেই এমন করছে কর্তৃপক্ষ।”

এই বাক্যবাণের পর পুরস্কার বিতরণীও বয়কট করেন মেসি। তৃতীয় স্থান পেলেও শেষপর্যন্ত আর পদক গ্রহণ করেননি আর্জেন্টিনার অধিনায়ক। সূত্রের খবর, মেসির এই মন্তব্য একেবারেই ভালভাবে নেয়নি দক্ষিণ আমেরিকার ফুটবল সংস্থা। তাঁর পালটা বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছে, “এটা একেবারেই গ্রহণযোগ্য নয়। বেশ কিছু ভিত্তিহীন অভিযোগ করা হয়েছে, এবং সত্যকে বিকৃত করা হয়েছে। কোপার বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়েই প্রশ্ন উঠছে।” দক্ষিণ আমেরিকার ফুটবল ফেডারেশনের নিয়মাবলীতে এই ধরনের মন্তব্যের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার আইন রয়েছে। যে আইন অনুযায়ী, এই ধরনের অভিযোগে অভিযুক্ত ফুটবলার বা সাপোর্ট স্টাফকে সর্বোচ্চ ২ বছর পর্যন্ত নির্বাসন দেওয়া হতে পারে। যদিও, মেসির বিরুদ্ধে ঠিক কী ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বা আদৌ কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে কিনা তা স্পষ্ট করেনি কোপা কর্তৃপক্ষ।

[আরও পড়ুন: ‘দুর্নীতিতে অংশ নিতে চাই না’, লাল কার্ড দেখে কোপার পুরস্কার বিতরণী বয়কট মেসির]

এদিকে ব্রাজিলকে জড়িয়ে মেসি মন্তব্য করায় ক্ষুব্ধ কোচ টিটেও। সুযোগ আসতেই তাঁকে পালটা দিয়েছেন তিনি। টিটে জানিয়েছেন, “টুর্নামেন্টের শুরু থেকে মেসি রেফারির সমালোচনা করে আসছেন। এটা ঠিক নয়। ওর মতো বিশ্বের অন্যতম সেরা ফুটবলারের উচিত প্রতিপক্ষকে সম্মান করা। তা না করে ও যে দুর্নীতির অভিযোগ আনছে সেটা মেনে নেওয়া কঠিন। মেসির যথেষ্ট বয়স হয়েছে। এবার ওর হারকে মেনে নেওয়া উচিত।”

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং