BREAKING NEWS

০৮ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  সোমবার ২৩ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

একাধিক গোলের সুযোগ নষ্ট রয় কৃষ্ণদের, ওড়িশার কাছে আটকে গেল এটিকে মোহনবাগান

Published by: Krishanu Mazumder |    Posted: January 23, 2022 11:28 pm|    Updated: January 24, 2022 12:34 am

ATK Mohun Bagan vs Odisha FC match ends in a draw in ISL | Sangbad Pratidin

এটিকে মোহনবাগান
ওড়িশা এফসি
সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একাধিক গোলের সুযোগ তৈরি করলেন রয় কৃষ্ণরা (Roy Krishna)। আবার হেলায় সেই সব সুযোগ নষ্টও করলেন। তার ফলে রবিবার ওড়িশার বিরুদ্ধে তিন পয়েন্টের বদলে এক পয়েন্ট নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হল এটিকে মোহনবাগান (ATK Mohun Bagan)শিবিরকে। 

কোভিডের জন্য আইএসএলে (ISL) তিনটি ম্যাচ স্থগিত হয়েছিল এটিকে মোহনবাগানের। তিনটে ম্যাচ না খেলায় দলের মধ্যে আলাদা একটা তরতাজা ব্যাপারও লক্ষ্য করা গিয়েছিল। ওড়িশার বিরুদ্ধে শুরুটাও সবুজ-মেরুন শিবির করেছিল বেশ ইতিবাচক ভঙ্গিতেই। কিন্তু ফুটবলে গোলই যে শেষ কথা। আর গোল করতে না পারায় ম্যাচটাও জেতা হল না জুয়ান ফেরান্দোর দলের। ওড়িশার জালে বল জড়াতে না পারার জন্য যদি সমালোচিত হন রয় কৃষ্ণ, ডেভিড উইলিয়ামসরা, তাহলে নিন্দুকরা ক্ষতবিক্ষত করতে পারেন ফেরান্দোকেও।

[আরও পড়ুন: প্রথমবার কোহলির মেয়ে ভামিকাকে দেখার সুযোগ পেলেন সমর্থকরা, ভিডিও ভাইরাল]

কারণ দ্বিতীয়ার্ধে তিনি তুলে নিলেন রয় কৃষ্ণকেই। অথচ ফিজিয়ান তারকাকে এদিন শুরু থেকেই অন্যরকম লাগছিল। গোল করার জন্য ছটফট করছিলেন তিনি। বল গড়ানোর শুরু থেকেই ওড়িশার গোলমুখে হানাদারি চালাচ্ছিলেন কৃষ্ণ। সেই তারকা স্ট্রাইকারকেই ফেরান্দো তুলে নিলেন। আর কৃষ্ণ উঠে যাওয়ার পরই এটিকে মোহনবাগানের আক্রমণভাগের ঝাঁজও কমে গেল। বিশ ঢালার লোকটাই যে নেই। তাই দিনের শেষে স্কোরলাইন বলছে এটিকে মোহনবাগান ০ ওড়িশা ০। কৃষ্ণকে তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্তের জন্য অনুতপ্ত হতে পারেন এটিকে মোহনবাগান কোচ ফেরান্দো। 

এদিন রেফারির বাঁশি বাজার পর থেকেই বেশ আক্রমণাত্মক মেজাজে খেলা শুরু করে সবুজ-মেরুন ব্রিগেড। একের পর এক আক্রমণ আছড়ে পড়ে ওড়িশার পেনাল্টি বক্সে। কখনও রয় কৃষ্ণ, কখনও ডেভিড উইলিয়ামস সেই সুযোগের সদ্ব্যবহার করতে পারেননি। তাঁরা সহজ গোলের সুযোগ নষ্ট না করলে প্রথমার্ধের শেষেই একাধিক গোলে এগিয়ে থাকতে পারত জুয়ান ফেরান্দোর ছেলেরা। লিস্টন কোলাসোর দুরন্ত ফ্রি কিকও ওড়িশার জালে ঢুকল না। বলটা যে মুহূর্তে গোত্তা খেয়ে গোলে ঢুকছিল, ঠিক সেই সময়ে ওড়িশার গোলকিপার অর্শদীপ সিং শরীর ছুড়ে বল বের করে দেন। 

ফেরান্দোকে ভাবাচ্ছিল ওড়িশার ডিফেন্স। সেই রক্ষণ দ্বিতীয়ার্ধে দাঁতে দাঁত চেপে লড়াই করে গেল। ওড়িশা শিবিরও যে এটিকে মোহনবাগানের গোলমুখে আক্রমণ তুলে আনেনি তা নয়। কিন্তু কাজের কাজটাই হয়নি।অবশ্য ফেরান্দো এই ম্যাচটা দ্রুতই ভুলে যেতে চাইবেন। পরের ম্যাচটাই যে আইএসএলের সেরা বক্স অফিস। চিরআবেগের ডার্বিতে এসসি ইস্টবেঙ্গলের সামনে এটিকে মোহনবাগান। একদিকের ডাগ আউটে মারিও রিভেরা। অন্যদিকে ফেরান্দো। দুই স্পেনীয় কোচের মগজাস্ত্রেরও যে লড়াই দেখবে ভারতীয় ফুটবল। 

[আরও পড়ুন: কোহলির টেস্ট নেতৃত্ব ছাড়া নিয়ে মুখ খুললেন শাস্ত্রী, বেছে নিলেন পরবর্তী অধিনায়কও!]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে