BREAKING NEWS

১৯ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২ জুন ২০২০ 

Advertisement

করোনা পরবর্তী ফুটবলের ঢাকে কাঠি বাংলাতেই, কলকাতাতে হবে ফুটসল ক্লাব চ্যাম্পিয়নশিপ!

Published by: Sulaya Singha |    Posted: May 19, 2020 4:02 pm|    Updated: May 19, 2020 4:02 pm

An Images

দুলাল দে: আই লিগ বা আইএসএল নয়। অনেক আগেই ঠিক হয়ে গিয়েছে, করোনা পরবর্তী ভারতীয় ফুটবলের দরজা খুলবে ‘ফুটসল ক্লাব চ্যাম্পিয়নশিপ’ দিয়ে। কিন্তু কোথায় হবে নতুন করে ভারতীয় ফুটবলের এই শুভ মহরৎ?

ফেডারেশন যে মুহূর্তে ঠিক করে, ফুটসল ক্লাব চ্যাম্পিয়ন দিয়ে ভারতীয় ফুটবলে ঢাকে কাঠি পড়বে, তখনই লারসেন মিং তাঁর নিজের রাজ্য মেঘালয়ে আয়োজন করতে চান করোনা পরবর্তী ফুটবলের নতুন অধ্যায়। কিন্তু নতুন অধ্যায়ের সূচনায় বাংলার ভূমিকা থাকবে না, হয় নাকি? তাই ফুটসল ক্লাব চ্যাম্পিয়নশিপ বাংলায় করার জন্য ফেডারেশনের কাছে আবেদন জানাল আইএফএ। সচিব জয়দীপ মুখোপাধ্যায় বলেন, “করোনার পর ফুটবল ফের চালু হবে। আর সেটা বাংলায় না হয়ে অন্য কোনও রাজ্যে হবে কেন? ফেডারেশন পরিচালিত প্রথম ফুটসল ক্লাব চ্যাম্পিয়নশিপ কলকাতায় আনার জন্য সবরকম চেষ্টা চালাব।”

[আরও পড়ুন: লকডাউনে ফের ত্রাতার ভূমিকায় লক্ষ্মীরতন, ১০০ শ্রমিক পরিবারকে ঘরে ফেরালেন মন্ত্রী]

খবর হচ্ছে, খরচের কথা ভেবেই শুরুতে বাংলার কথা মাথায় আসেনি ফেডারেশন কর্তাদের। কারণ, ফুটসল চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য সেরকম বিশাল বাজেট নেই ফেডারেশনের। তাই লারসেন মিং মেঘালয়ে তা করতে চাওয়ায় প্রায় রাজিই ছিলেন ফেডারেশন কর্তারা। কিন্তু যেই মুহূর্তে বাংলা থেকে আবেদন জমা পড়েছে, নতুন করে ভাবনা চিন্তাশুরু হয়ে গিয়েছে ফেডারেশন দপ্তরে। আপাতত যা পরিস্থিতি, তাতে বাংলার ভাগ্যেই হয়তো শিকে ছিঁড়তে চলেছে।

এই চ্যাম্পিয়নশিপে যেরকম আইএসএল-আই লিগের দলগুলি খেলতে পারবে, সেরকম যে যে রাজ্যে ফুটসল চ্যাম্পিয়নশিপ হয়, তাদের চ্যাম্পিয়ন ক্লাবও খেলতে পারবে। ফেডারেশনের ভাবনা হল, রাজ্যের একটি সাধারণ ক্লাবও আইএসএল-আই লিগ দলগুলির সঙ্গে এই ফুটসলে খেলার সুযোগ পাবে। তাছাড়া ফেডারেশনে রেজিস্ট্রেশন থাকা ফুটবলারদেরই খেলাতে হবে, এরকমটা নয়। যে কোনও প্রাক্তন ফুটবলারকেও শুধুমাত্র এই ফুটসলের জন্য রেজিস্ট্রেশন করিয়ে খেলিয়ে নেওয়া যাবে।

[আরও পড়ুন: করোনার জের, বলে লালারস লাগানোয় নিষেধাজ্ঞার সুপারিশ আইসিসি ক্রিকেট কমিটির]

আইএসএলের দল বেঙ্গালুরু এফসি-সহ আপাতত দশটা দল ফেডারেশনের কাছে আবেদন করেছে এই প্রতিযোগিতায় খেলার জন্য। কর্তারা আশাবাদী, আরও নাম আসবে। কিন্তু কবে হবে টুর্নামেন্ট? আইএফএ সচিব জয়দীপ মুখোপাধ্যায় বললেন, “আমরা সরকারের থেকে যেভাবে সম্মতি পাব, সেভাবেই এই ফুটসল চ্যাম্পিয়নশিপ করতে আগ্রহী। কারণ, দেশে প্রথম ফুটবল চালু হলে, সবার নজর এই প্রতিযোগিতার দিকে থাকবেই। তবে নেতাজি ইন্ডোরে হবে না ক্ষুদিরামে, রাজ্য সরকারের সঙ্গে আলোচনা না করে সিদ্ধান্ত জানাতে পারব না।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement