BREAKING NEWS

১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ফের শেষ মুহূর্তে গোল হজম, হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে ড্র করেই মাঠ ছাড়ল এসসি ইস্টবেঙ্গল

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: February 12, 2021 9:43 pm|    Updated: February 12, 2021 9:54 pm

ISL 2020: SC East Bengal vs Hyderabad FC match ended in a draw | Sangbad Pratidin

এসসি ইস্টবেঙ্গল- ১ (ব্রাইট)
হায়দরাবাদ এফসি-১ (আরিদানে)

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফুটবলে একটি প্রচলিত কথা রয়েছে, এক গোলের ব্যবধান কখনওই সুরক্ষিত নয়। আর ময়দানের সেই প্রচলিত কথাই শুক্রবার রাতে ফের সত্যি হল। হায়দরাবাদের (Hyderabad FC) বিরুদ্ধে নির্ধারিত ৯০ মিনিট পর্যন্ত ১ গোলে এগিয়ে থাকলেও অতিরিক্ত সময়ের শুরুতেই গোল খাওয়ায় ড্র করেই মাঠ ছাড়ল এসসি ইস্টবেঙ্গল (SC East Bengal)। তিন পয়েন্টের জায়গায় এক পয়েন্ট পেয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হল তাদের। ফলে প্লে-অফে যাওয়ার আশাও কার্যত শেষ হয়ে গেল লাল-হলুদের। তবে এদিনও কিন্তু রেফারিং নিয়ে একাধিক প্রশ্নও উঠেছে।   

হারলেই প্লে-অফের সমস্ত আশা শেষ হয়ে যাবে। এই পরিস্থিতিতে হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে প্রথম একাদশে কোনও পরিবর্তনই করেনি এসসি ইস্টবেঙ্গল। অর্থাৎ জামশেদপুরের বিরুদ্ধে মাঠে নামা দলটিই এদিন নামিয়েছিল লাল-হলুদ ব্রিগেড। ম্যাচের শুরু থেকেই অবশ্য মাঝমাঠ দখলের লড়াই শুরু করে দেয় দু’দল। তবে হায়দরাবাদ ধীরে ধীরে ম্যাচের রাশ নিজেদের হাতে তুলে নেয়। গোটা প্রথমার্ধ জু়ড়ে তাঁরা আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলতে থাকলেও বেশ আঁটসাঁট ছিল লাল-হলুদ রক্ষণ। ফলে কোনও বিপদ ঘটেনি। এছাড়া তেকাঠির নিচে ম্যাচের প্রথম মিনিট থেকেই অনবদ্য ছিলেন সুব্রত পালও। ২০ মিনিটের মাথাতেই দুরন্ত একটি সেভ করেন ‘স্পাইডারম্যান’। এরপরও হায়দরাবাদের আক্রমণ বহাল ছিল। কিন্তু কোনও গোল আসেনি।

[আরও পড়ুন: ‘বিরাটের বোঝা কমাতে সিনিয়ররা এগিয়ে এসো’, পরামর্শ ইংল্যান্ডের প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ ক্রিকেটারের]

প্রথমার্ধ গোলশূন্য থাকলেও দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই কাঙ্খিত গোলটি পেয়ে যায় এসসি ইস্টবেঙ্গল। এই অর্ধে শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক হতে শুরু করেন মাঘোমা-স্টেইনম্যান-পিলকিংটন-ব্রাইটরা। আর তারই ফলস্বরূপ ৫৯ মিনিটে ব্রাইটের দুরন্ত গোল। প্রথম দু’টি ম্যাচে দু’গোল করেছিলেন। কিন্তু তারপর থেকে তাঁর নামের পাশে কোনও গোল ছিল না। কিন্তু এদিন কাউন্টার অ্যাটাকে টুর্নামেন্টে নিজের তৃতীয় গোলটি করেন ব্রাইট। তবে পিলকিংটনের পাসটিও ছিল যথেষ্ট প্রশংসনীয়। এরপর আরও একটি গোল করতে পারত এসসি ইস্টবেঙ্গল। ৮২ মিনিটে বক্সের মধ্যে ব্রাইটকে হায়দরাবাদের গোলকিপার কাট্টিমনি ফাউল করেন। কিন্তু রেফারি অজিত মিতেই পেনাল্টির দাবি নাকচ করে দেন। আর এরপরই অতিরিক্ত সময়ের প্রথম মিনিটেই আরিদানের গোল। লাল-হলুদ রক্ষণের ভুলে গোলটি করে যান তিনি। শেষমুহূর্তে হায়দরাবাদের একজন খেলোয়াড় লাল কার্ড দেখলেও তাতে তেমন সুবিধা করতে পারেনি এসসি ইস্টবেঙ্গল।

এই ম্যাচ ড্র করায় প্লে-অফে যাওয়ার আশা কার্যত শেষই হয়ে গেল এসসি ইস্টবেঙ্গলের জন্য। ১৭ ম্যাচ খেলে রবি ফাউলারের ছেলেদের পয়েন্ট রইল ১৭। অন্যদিকে, ১৭ ম্যাচে ২৪ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলে তিন নম্বরে রইল হায়দরাবাদ।

[আরও পড়ুন: এক বছরে ৬ ট্রফি, ক্লাব বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে বিরল রেকর্ড বায়ার্নের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে