২২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  সোমবার ৯ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ডেভিস কাপ টাইয়ের প্রথম দিন পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বিজয় রথ ছোটালেন ভারতীয় তারকারা। দাঁত-নখহীন প্রতিদ্বন্দ্বীদের সহজেই মাটি ধরিয়ে দিনের শেষে ২-০ এগিয়ে গেলেন রামানাথনরা।

অভিজ্ঞতা আর শক্তির দিক থেকে ভারতীয় দলের থেকে এবার অনেকটাই পিছিয়ে পাকিস্তান। আইটিএফ ফিউচার প্রতিযোগিতায় মূল পর্বে কোনও ম্যাচ জিততে পারেননি মহম্মদ শোয়েব। ২০১৯ মরশুমে এটিই ছিল তাঁর প্রথম ম্যাচ। ফলে যা হওয়ার তাই হল। শুক্রবার পুরুষ সিঙ্গসের প্রথম ম্যাচে ১৭ বছরের শোয়েবকে মাত্র ৪২ মিনিটেই পরাস্ত করেন রামকুমার রামানাথন। দুই প্রতিযোগীর দক্ষতা ও অভিজ্ঞতার আকাশ-পাতাল পার্থক্য স্পষ্ট চোখে পড়ে। খেলার একেবারে অন্তিম লগ্নে দ্বিতীয় সেটের ষষ্ঠ গেমে দুবার ডিউস করে যা একটু রুখে দাঁড়িয়েছিলেন শোয়েব। 

[আরও পড়ুন: কুস্তিগিরদের কলঙ্কিত করেছেন পরিচালক, নেটদুনিয়ায় ক্ষোভ উগরে দিলেন যোগেশ্বর]

পরের সিঙ্গলসের ছবিটাও প্রায় একইরকম। স্ট্রেট সেটে ম্যাচ জিতে নেন ভারতের সুমিত নাগাল। ডেভিস কাপে এটি তাঁর প্রথম জয়। জুনিয়র আইটিএফ সার্কিটে ছন্দে থাকা পাক খেলোয়াড় হুফাইজা মহম্মদ রেহমানকে দাঁড়ানোর কোনও সুযোগই দেননি তিনি। ৬৪ মিনিটের লড়াইয়ে ৬-০, ৬-২ সেটে ম্যাচ পকেটে পোরেন সুমিত।

পাকিস্তানকে সমস্যায় ফেলে দিয়েছে আইসাম উল হক কুরেশি এবং অভিজ্ঞ আকিল খানের না থাকা। ইসলামাবাদ থেকে টাই নিরপেক্ষ কেন্দ্র নুর সুলতানে সরিয়ে দেওয়ার প্রতিবাদে দু’জনই টাই থেকে নাম তুলে নিয়েছেন। তাই লিয়েন্ডার পেজদের পক্ষে কাজটা নিঃসন্দেহে সহজ হয়ে দাঁড়িয়েছে। শনিবার হুফাইজা এবং শোয়েবের বিরুদ্ধে ডাবলসে নামবেন পেজ ও জীবন। শনিবার জিতলে ডেভিস কাপে সর্বাধিক জয়ের রেকর্ড গড়বেন পেজ। ছ’বারের সাক্ষাতে ডেভিস কাপ টাইয়ে এখনও পর্যন্ত পাকিস্তানের কাছে হারেনি ভারত। সেই ধারা যে এবারও অব্যাহত থাকবে তা বলাই যায়।

[আরও পড়ুন: ফের কলঙ্কিত ২২ গজ, ম্যাচ গড়াপেটায় নাম জড়াল এই ভারতীয় ক্রিকেটারের]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং