২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৯ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বুড়ো হাড়ে এখনও ভেলকি দেখিয়ে চলেছেন তিনি। একের পর এক ট্রফি জিতে দুনিয়াকে বিস্মিত করে চলেছেন। বুঝিয়ে দিচ্ছেন, বয়সটা নেহাতই সংখ্যা। তিনি রজার ফেডেরার। রবিবার যিনি অজি প্রতিপক্ষকে হারিয়ে কেরিয়ারের দশম বাসেল খেতাব জিতে নিলেন।

দেশের মাটিতে একসময় এই টুর্নামেন্টে বল বয়ের ভূমিকায় দেখা যেত খুদে ফ্রেডিকে। সেই ফ্রেডিই বড় হয়ে এই টুর্নামেন্টের ফেভরিট হয়ে ওঠেন। আর এই নিয়ে দশ-দশবার বাসেল ট্রফি ঘরে তুললেন তিনি। রবিবার অস্ট্রেলিয়ার অ্যালেক্স ডি মিনরকে ৬-২, ৬-২ স্ট্রেট সেটে উড়িয়ে দিয়ে অবিশ্বাস্য সাফল্য পান সুইস তারকা। ২০ বছরের অজি প্রতিপক্ষকে ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই পরাস্ত করেন তিনি। ম্যাচ শেষে যখন ট্রফি হাতে তুলছেন, তখন আসন ছেড়ে উঠে দাঁড়িয়ে ফেডেরারের জন্য হাততালি দিচ্ছেন তাঁর ভক্তরা। ৯ হাজার দর্শকের থেকে এমন ভালবাসা পেয়ে আর আবেগ ধরে রাখতে পারলেন না ২০টি গ্র্যান্ড স্লামের মালিক। চোখের কোণ জলে ভিজল তাঁর।

[আরও পড়ুন: সিরিজ হেরে ভুল বকছেন ডু প্লেসি! প্রোটিয়া অধিনায়ককে তুলোধোনা নেটিজেনদের]

আপ্লুত ফেডেরার বললেন, “বল বয় হওয়াটা আমাকে অনুপ্রেরণা দিয়েছিল। কিন্তু বিশ্বাসই হয় না, এখানেই দশটা খেতাব জিতে গেলাম। একটাও পাব কখনও ভাবিনি। এই সপ্তাহটা দারুণ কাটল। কেরিয়ারে একটা টুর্নামেন্টে দশবার ট্রফি জয় খুবই কঠিন। তাই ভাল লাগছে। আর দর্শকদের দুর্দান্ত সমর্থন ছিল।”

এই জয়ের সঙ্গে টেনিস কেরিয়ারের ১০৩ নম্বর ট্রফিটি ঘরে তুললেন ৩৮ বছর বয়সি ফেডেরার। মার্কিন তারকা জিমি কোনোর্সের রেকর্ড সংখ্যক (১০৯) এটিপি খেতাব থেকে আর মাত্র ছ’ধাপ দূরে টেনিস সম্রাট। চলতি মরশুমে দুবাই, মায়ামি এবং হ্যালের পর এই নিয়ে চার নম্বর ট্রফি জিতলেন ফ্রেড এক্সপ্রেস। বললেন, “আরও একবার বাসেলের কোর্টে নেমে খেলাটাকে দারুণ উপভোগ করেছি। আশা করি, পরের বছর টুর্নামেন্টের সুবর্ণ জয়ন্তীতে আবার এই কোর্টে ফিরব।”

[আরও পড়ুন: দীপাবলির পরপরই প্রথম টি-২০, বাংলাদেশ ম্যাচের আগে দিল্লির দূষণ নিয়ে চিন্তায় বোর্ড]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং