BREAKING NEWS

২৭ আষাঢ়  ১৪২৭  রবিবার ১২ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

কেন্দ্রীয় ক্রীড়া উপদেষ্টা কমিটি থেকে বাদ শচীন-আনন্দ, পরিবর্ত হিসেবে এলেন এঁরা

Published by: Sulaya Singha |    Posted: January 21, 2020 1:56 pm|    Updated: January 21, 2020 2:46 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গত ডিসেম্বরে শচীন তেণ্ডুলকরের নিরাপত্তা কমিয়ে বিতর্কের মুখে পড়েছিল মহারাষ্ট্র সরকার। এবার কেন্দ্রীয় ক্রীড়া পরিষদ থেকে তাঁকে ছেঁটে ফেলায় রীতিমতো হতবাক ক্রিকেটপ্রেমীরা। মাস্টার ব্লাস্টারের পাশাপাশি গ্র্যান্ডমাস্টার বিশ্বনাথন আনন্দকেও বাদ দেওয়া হয়েছে অল ইন্ডিয়া কাউন্সিল অফ স্পোর্টস (AICS) থেকে।

মোদি সরকারের আমলেই খেলাধুলোয় উন্নতির স্বার্থে তৈরি হয়েছিল এই সর্বভারতীয় ক্রীড়া পরিষদ। ২০১৫ সালে তৎকালীন ক্রীড়ামন্ত্রী সর্বানন্দ সোনওয়াল ক্রীড়াক্ষেত্রে উন্নতির জন্য উপদেষ্টা কমিটিতে রেখেছিলেন ভারতীয় ক্রীড়াদুনিয়ার দিগ্গজদের। শচীন, আনন্দের সঙ্গে সেই প্যানেলে ছিলেন প্রাক্তন ভারতীয় ফুটবল অধিনায়ক বাইচুং ভুটিয়াও। গত বছর মে মাসে পরিষদের প্রথম মেয়াদ শেষ হয়। তখনই বাদ পড়েন বাইচুং এবং প্রাক্তন ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়ন পুলেল্লা গোপীচাঁদ। আর দ্বিতীয় মেয়াদ শুরুর কয়েক মাসের মধ্যেই বাদ দেওয়া হল ‘ক্রিকেট ঈশ্বর’ শচীন এবং পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন আনন্দকে। তাঁদের পরিবর্তে প্রাক্তন ভারতীয় স্পিনার হরভজন সিং এবং কৃষ্ণমাচারি শ্রীকান্তকে কমিটিতে স্বাগত জানিয়েছে পরিষদ।

[আরও পড়ুন: আইসিসি ওয়ানডে ব়্যাঙ্কিংয়ে জয়জয়কার ভারতের, শীর্ষে কোহলি-বুমরাহ]

কিন্তু কেন এমন সিদ্ধান্ত নিল AICS? একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্র মারফত জানতে পেরেছে, শচীন ও আনন্দ কমিটির মাত্র কয়েকটি বৈঠকেই শামিল হয়েছিলেন। উপদেষ্টা হিসেবে সেভাবে তাঁরা সময় দেননি। সেই কারণেই তাঁদের বাদ দেওয়া হয়েছে। গোপীচাঁদের ক্ষেত্রেও কারণটা খানিকটা আলাদা। পরিষদ জানে, আসন্ন টোকিও অলিম্পিকের প্রস্তুতির জন্য শিষ্যদের নিয়ে ব্যস্ত তিনি। যার জন্য কমিটিতে বিশেষ সময় দিতে পারছিলেন না। তাই তাঁকে বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল।

দ্বিতীয় মেয়াদে পরিষদের মোট সদস্য সংখ্যাও ২৭ থেকে কমে ১৮ হয়। উপদেষ্টা কমিটির নয়া সদস্য হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছে, প্রাক্তন তীরন্দাজ লিম্বা রাম, কিংবদন্তি অ্যাথলিট পিটি উষা, পর্বতারোহী বাচেন্দ্রী পাল, প্যারা-অ্যাথলিট দীপা মালিক, শুটার অঞ্জলি ভাগবত, ফুটবলার রেনেডি সিং এবং কুস্তিগিড় যোগেশ্বর দত্ত।

[আরও পড়ুন: ডার্বি দেখতে যাওয়ার পথে দুর্ঘটনা মোহন সমর্থকের, সাহায্যের হাত বাড়ালেন কর্তারা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement