BREAKING NEWS

২৬ শ্রাবণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১৩ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

হর্ষ ভোগলেকে নিয়ে অপমানজনক মন্তব্য! ফের বিতর্কে সঞ্জয় মঞ্জরেকর

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: November 25, 2019 11:49 am|    Updated: November 25, 2019 12:37 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিশ্বকাপ চলাকালীন রবীন্দ্র জাদেজার উপযোগিতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন। ভারত-বাংলাদেশ দিনরাতের টেস্ট চলাকালীন ফের বিতর্কে জড়ালেন প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার তথা ধারাভাষ্যকর সঞ্জয় মঞ্জরেকর। এবার তিনি প্রশ্ন তুলে ফেললেন বিখ্যাত ধারাভাষ্যকর হর্ষ ভোগলের ক্রিকেটীয় জ্ঞান নিয়েই। যার জেরে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘোরতর বিতর্কের মুখে পড়তে হল টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন তারকাকে।


কিন্তু কী এমন বলেছিলেন মঞ্জরেকর? ভারতের মাটিতে আয়োজিত প্রথম দিনরাতের টেস্টে বাংলাদেশের পরাজয়ের পর মঞ্জরেকর এবং ভোগলে ম্যাচ নিয়ে বিশ্লেষণ করছিলেন। সেসময়, গোলাপি বল ঠিকঠাক দেখা যাচ্ছে কিনা, তা নিয়ে বিতর্ক শুরু হয় দুই বিশেষজ্ঞের মধ্যে। প্রশ্ন ওঠে সন্ধেবেলা গোলাপি বল দেখতে ক্রিকেটারদের সমস্যা হচ্ছে কিনা। এই প্রশ্নে নিজেদের মতামত দেন ভোগলে এবং মঞ্জরেকর। এক্ষেত্রে একে অপরের মতের সঙ্গে দ্বিমত পোষণ করেন তাঁরা।

[আরও পড়ুন: ‘দাদাই জয়ের অভ্যেসটা তৈরি করে দিয়েছে’, পিংক টেস্ট জিতে সৌরভের প্রশংসায় কোহলি]


মঞ্জরেকরের স্পষ্ট দাবি ছিল, গোলাপি বল দেখতে ক্রিকেটারদের কোনও অসুবিধাই হচ্ছে না। ভোগলে বলেন, এ বিষয়ে ক্রিকেটারদের জিজ্ঞেস করা উচিত। তিনি বলেন, “আমার মনে হয় সাদা সাইট স্ক্রিন গোলাপি বল দেখার জন্য সমস্যার হতে পারে। তাই ক্রিকেটারদের জিজ্ঞেস করা উচিত।” তাতে মঞ্জরেকর বলেন, “প্রথম দুই দিনে স্লিপ কর্ডনে যে ভাবে কঠিন ক্যাচ ধরা হয়েছে, তাতে বল দেখতে সমস্যার প্রশ্নই ওঠে না।” ভোগলে আবারও বলেন, “আমার মনে হয় এক্ষেত্রে ক্রিকেটারদের জিজ্ঞেস করাই শ্রেয়।” তাতেই মঞ্জরেকর বলে ওঠেন, “আপনাদের উচিত, বল দেখা যাচ্ছে কি না তা হর্ষকে জিজ্ঞাসা করা। আমরা যাঁরা একটু-আধটু ক্রিকেট খেলেছি, তাঁদের জিজ্ঞাসা করার দরকার নেই। এটা তো পরিষ্কার যে বল দেখতে কোনও সমস্যা হচ্ছে না।” এর পালটা দেন ভোগলে। তিনি বলেন, শুধু ক্রিকেট খেলেছি মানেই নতুন কিছু জানব না, তা হতে পারে না। তাহলে, তো টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটই আসত না। 

 

মঞ্জরেকরের এই মন্তব্যকেই অপমানজনক বলে মনে করছেন নেটিজেনরা। তাঁরা প্রাক্তন ক্রিকেটারকে রীতিমতো তুলোধোনা করেছেন। সঞ্জয় মঞ্জরকরকে ভোগলের কাছে ক্ষমা চাইতে হবে বলেও দাবি নেটিজেনদের।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement