২৬  শ্রাবণ  ১৪২৯  শনিবার ১৩ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

লজ্জা! আইপিএলে হারের রেকর্ড গড়লেন বিরাট

Published by: Sulaya Singha |    Posted: April 6, 2019 7:58 pm|    Updated: April 6, 2019 7:58 pm

Virat Kohli's new record, he becomes No.1 Most IPL defeats

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শুক্রবারই সুরেশ রায়নাকে পিছনে ফেলে আইপিএলের সর্বোচ্চ রানের মালিক হয়েছেন বিরাট কোহলি। জাতীয় দলের জার্সি গায়েও একের পর এক ইতিহাস গড়েছেন। ভেঙেছেন পুরনো রেকর্ড। কিন্তু এবার আইপিএলে এমন এক রেকর্ডের মালিক হলেন তিনি, যা হয়তো কখনওই চাননি আরসিবি অধিনায়ক।

[আরও পড়ুন: অ্যান্টিবায়োটিকে সাড়া দিচ্ছেন পেলে, অনেকটাই সুস্থ ফুটবল সম্রাট]

চলতি আইপিএলে পাঁচটি ম্যাচ খেলে ফেলেছে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর। কিন্তু এখনও পর্যন্ত জয়ের মুখ দেখেনি দল। শুক্র-রাতে চিন্নাস্বামীতে প্রায় জেতা ম্যাচও চিলের মতো ছোঁ মেরে হাতিয়ে নিলেন কেকেআরের ‘অতিমানব’ আন্দ্রে রাসেল। আর তারপরই নয়া রেকর্ডের মালিক হলেন কোহলি। আইপিএলের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ হারার তালিকায় শীর্ষে এখন কোহলি। সত্যি, বিরাট ভক্তদের মন খারাপ করার মতোই খবর। যিনি দ্বিতীয় ভারতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে টি-টোয়েন্টিতে আট হাজার রান করেছেন, সেই কোহলিই কিনা নেতা হিসেবে চূড়ান্ত ব্যর্থ। পরিসংখ্যান বলছে, ক্রিকেটার হিসেবে এখনও পর্যন্ত আইপিএলে ৮৬টি ম্যাচে পরাস্ত হয়েছেন কোহলি। এই তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন কেকেআরের রবিন উথাপ্পা। ৮৫টি ম্যাচ হেরেছেন তিনি। ৮১টি ম্যাচ হেরে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের নেতা রোহিত শর্মা রয়েছেন তিন নম্বরে। এদিকে আইপিএলের ইতিহাসে দীনেশ কার্তিক পরাস্ত হয়েছেন ৭৯টি ম্যাচে।

[আরও পড়ুন: বিরাটের রেকর্ডের দিনও হার আরসিবির, কেকেআরের জয় ছিনিয়ে নিলেন রাসেল]

গতকাল ৪৯ বলে অনবদ্য ৮৪ রানের ইনিংস খেলেন আরসিবি অধিনায়ক। ব্যাটসম্যান হিসেবে আইপিএলে ১৬৮টি ম্যাচে ৫১১০ রান এখন তাঁর ঝুলিতে। কিন্তু কয়েনের উলটো পিঠের মতোই এই টুর্নামেন্টে চূড়ান্ত ব্যর্থ নেতা বিরাট। ক্রিকেটার এবং অধিনায়ক হিসেবে ১২ বছরে ৮৬টি ম্যাচে বিপক্ষের কাছে পর্যুদস্ত হতে হয়েছেন তিনি। বিশেষজ্ঞরাও বুঝে উঠতে পারছেন না, নেতা হিসেবে ঠিক কোথায় ঘাটতি থেকে যাচ্ছে তাঁর। কারণ এই বিরাটই জাতীয় দলকে নেতৃত্ব দিয়ে বিদেশের মাটিতেও টেস্ট, ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টি জিতিয়েছেন। বিশ্বকাপের আগে তাঁর ব্যর্থতায় চিন্তিত ভারতীয় ক্রিকেট মহলও। তবে পাঁচ ম্যাচ হেরেও হাল ছাড়তে রাজি নন ক্যাপ্টেন। ২০১৬ সালেও পরপর হেরেও দুর্দান্ত পারফরম্যান্স দিয়ে দলকে ফাইনালে পৌঁছে দিয়েছিলেন তিনি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে