BREAKING NEWS

১২ কার্তিক  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৯ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

OppositionLeader

মান্নান-ই বিরোধী দলনেতা, ক্ষুব্ধ মানস

An Images

  Posted: May 31, 2016 9:39 amUpdated: May 31, 2016 9:39 am

এদিকে, যতই জোট-জোট করা হোক, বাস্তবে বামফ্রন্ট ও কংগ্রেসের একটি অংশ একে অপরের সঙ্গে আর সম্পর্ক মধুর রাখতে রাজি নন৷ যেমন, দলের অনেকেই সিপিএমের সঙ্গে শপথ নিলেও মানসবাবু শনিবার আলাদাভাবে শপথ নেন৷ বামেদের সঙ্গে জোট-বেঁধে শপথ নেওয়ারও তিনি বিরোধিতা করেন৷ মান্নানের অনুরোধও শোনেননি৷ জানা গিয়েছে, মানসবাবুকে পাবলিক অ্যাকাউন্টস কমিটির চেয়ারম্যান করা হতে পারে৷ মানস অবশ্য কোনও পদ নিতে রাজি নন৷ সোমবার ব্যক্তিগত কাজ থাকায় মানসবাবু বিধানসভায় আসেননি৷ তবে এদিন পরিষদীয় দলনেতা নির্বাচিত হয়ে মানসবাবুকে ফোন করে সহযোগিতা চান আবদুল মান্নান৷ মানস মুখে তাঁকে অভিনন্দন জানালেও ঘনিষ্ঠমহলে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন৷

  • বিরোধী নেতা নির্বাচন নিয়ে জলঘোলা কংগ্রেসে!

      Posted: May 27, 2016 9:50 amUpdated: May 27, 2016 9:50 am

    কংগ্রেস সূত্রে খবর, মানস-মান্নানের মধ্য থেকেই একজনকে বিরোধী দলনেতা করা হবে৷ তবে কংগ্রেসের শিবিরের একটি অংশের বক্তব্য, মুর্শিদাবাদ কংগ্রেসের শক্ত ঘাঁটি৷ প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরির নিজের জেলা৷ সেখান থেকে কোনও বিধায়ককে বিরোধী দলনেতা করা হোক, এমনটাই চাইছে কংগ্রেসের একটি অংশের নেতারা৷ গত মঙ্গলবার দলের নবনির্বাচিত ৪৪ জন বিধায়ক, সাংসদ, জেলা সভাপতি ও সাংগঠনিক দায়িত্বে থাকা নেতৃত্বকে নিয়ে বৈঠক করেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরি৷ বামেদের থেকে বিধায়ক সংখ্যা বেশি থাকায় প্রধান বিরোধী দলের তকমা পেতে চলেছে কংগ্রেস৷ কাকে বিরোধী দলনেতা করা হবে, তা নিয়ে মঙ্গলবারের বৈঠকে সবিস্তার আলোচনা করেও ঐকমত্যে পৌঁছতে পারেননি প্রদেশ কংগ্রেস নেতৃত্ব৷ অধীর চৌধুরি বলেন, "বিরোধী দলনেতা কে হবেন, তার সিদ্ধান্ত নেবে এআইসিসি৷ আমরা ৪৪ জন বিধায়কের বায়োডাটা দিল্লিতে পাঠিয়েছি৷"

Advertisement

    Advertisement

    Advertisement

    Advertisement

    Advertisement