২৪ বৈশাখ  ১৪২৮  শনিবার ৮ মে ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বিজেপি আইটি সেলকে টক্কর! দেশজুড়ে ৫ লক্ষ সোশ্যাল মিডিয়া কর্মী নিয়োগ করবে কংগ্রেস

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: February 7, 2021 3:11 pm|    Updated: February 7, 2021 4:47 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যুগের সাথে বদলাচ্ছে রাজনীতি। মাঠে ময়দানের থেকে এখন রাজনৈতিক লড়াই বেশি দেখা যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। জনমত গঠনেরও অন্যতম মাধ্যম হয়ে উঠেছে এই সোশ্যাল মিডিয়া। আর সামাজিক মাধ্যমের এই লড়াইয়ে বিরোধীদের থেকে কয়েকশো যোজন এগিয়ে বিজেপি (BJP)। নিন্দুকেরা বলেন, দেশজুড়ে গেরুয়া শিবিরের বিপুল জনসমর্থনের অন্যতম কারণই হল সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁদের আধিপত্য। আইটি সেলের নামে রীতিমতো সোশ্যাল মিডিয়ায় ‘ট্রোল আর্মি’ তৈরি করে ফেলেছে বিজেপি। তুলনায় অনেক পিছিয়ে কংগ্রেস। যার মাশুল দিতে হয়েছে গত কয়েক বছরের প্রায় সব নির্বাচনে। তাই এবার সোশ্যাল মিডিয়ার লড়াইয়েও বিজেপিকে টক্কর দিয়ে চায় হাত শিবির। সেকারণে সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো আর্মি তৈরি করার প্রস্তুতি নিচ্ছে রাহুল গান্ধীদের (Rahul Gandhi) দল।

কংগ্রেস সূত্রের খবর, আগামী দিনে বিজেপির আইটি সেলকে সমানে সমানে টক্কর দিতে দেশজুড়ে ৫ লক্ষ সোশ্যাল মিডিয়া কর্মী নিয়োগ করবে কংগ্রেস (Congress)। এঁদের কাজ হবে বিজেপির যাবতীয় ‘অপপ্রচার’ এবং ঘৃণার বিরোধিতা করে আসল তথ্য জনসমক্ষে তুলে ধরা। দলের এক শীর্ষ নেতার কথায়, কংগ্রেস দেশের সাধারণ যুবসমাজ থেকেই এই ৫ লক্ষ কর্মীকে তুলে আনতে চাইছে। সেজন্য সোশ্যাল মিডিয়ায় বিজ্ঞাপন দেওয়া শুরু হয়েছে ইতিমধ্যেই। যারা যারা কংগ্রেসের সোশ্যাল মিডিয়া টিমে যোগ দিতে চায়, তাঁদের নাম প্রথমে নথিভুক্ত করা হবে। তারপর নেওয়া হবে ইন্টারভিউ। এবং ছেঁকে বাছাই করা হবে ৫ লক্ষ কর্মীকে। তারপর এঁদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। এরপর এঁদের নামানো হবে বিজেপি আইটি সেলের মোকাবিলায়। কংগ্রেস সূত্রের খবর, দল চাইছে দেশের প্রতিটা জেলায় সোশ্যাল মিডিয়ায় অন্তত ৫০ হাজার কর্মী-সমর্থককে নামিয়ে দিতে। তাঁদের সঙ্গে কাজ করবেন এই ৫ লক্ষ কর্মী।

[আরও পড়ুন: ভূস্বর্গে ‘বিপ্লব’, কাশ্মীরে প্রথমবার জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হলেন সিপিএম প্রার্থী ]

কিন্তু এখন প্রশ্ন উঠছে, এই বিশাল সোশ্যাল মিডিয়া আর্মি সামলানোর অর্থ কোথা থেকে আসবে। সম্প্রতি নির্বাচন কমিশনে ২০১৯-২০ অর্থবর্ষে মোট প্রাপ্ত চাঁদার পরিমাণ প্রকাশ করেছে কংগ্রেস। তাতে দেখা যাচ্ছে কংগ্রেসের দলীয় তহবিলে ইলেক্টোরাল বন্ডের মাধ্যমে মোট ৩৫২ জন মিলে ১৪৬ কোটি টাকা দান করেছেন। অনেকে বলছেন, কংগ্রেস দল যে চূড়ান্ত দুর্দশার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে, তার প্রমাণ এই অনুদানের মোট পরিমাণ। বিজেপি যেখানে বিভিন্ন শিল্পপতিদের কাছ থেকে শ’য়ে শ’য়ে কোটি টাকা ডোনেশেন পাচ্ছে, সেখানে কংগ্রেসের মোট অনুদানের পরিমাণ মাত্র ১৪৬ কোটি টাকা। এই অতি সামান্য মূলধন নিয়ে গোটা দেশের দল চালানো যে সহজ কাজ নয়, সেটা জানার জন্য বিশেষজ্ঞ হওয়ার প্রয়োজন পড়ে না।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement