BREAKING NEWS

১৮ শ্রাবণ  ১৪২৭  সোমবার ৩ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে উলটে পড়ল বাস, নেপালে মৃত কমপক্ষে ১৪

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: December 15, 2019 12:02 pm|    Updated: December 15, 2019 12:06 pm

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নেপালে ভয়াবহ বাস দুর্ঘটনার ফলে মৃত্যু হল কমপক্ষে ১৪ জনের। রবিবার সকাল সাড়ে আটটা নাগাদ দুর্ঘটনাটি ঘটেছে নেপালের সিন্ধুপালচক জেলার সানকোশী এলাকায়। এই দুর্ঘটনায় আরও ২৮ জন জখম হয়েছেন বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ৪০ জনের বেশি তীর্থযাত্রী নিয়ে ওই বাসটি নেপালের কালিনচক মন্দির থেকে ভক্তপুর এলাকায় ফিরছিল। সিন্ধুপালচক জেলার সাত নম্বর সানকোশী রুরাল মিউনিসিপ্যালিটির অন্তর্গত ডোলখা খাদিচূড়-জিরি হাইওয়ের সিক্স কিলো এলাকায় এসে আচমকা নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে বাসটি। তারপর রাস্তা থেকে ৫০০ মিটার নিচে খাদে পড়ে উলটে যায়। বিষয়টি দেখতে পেয়ে ছুটে আসে স্থানীয় জনতা। খবর দেওয়া হয় প্রশাসনকেও।

[আরও পড়ুন: দগ্ধ দেহের গ্রাফটিংয়ে বিপুল পরিমাণ চামড়া প্রয়োজন, নিউজিল্যান্ডকে সাহায্য ওহাইয়োর]

 

সবার চেষ্টায় বাসের যাত্রীদের উদ্ধার করা হলে দেখা যায় ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। বাকি যাত্রীরা গুরুতর জখম হয়েছেন। সঙ্গে সঙ্গে তাঁদের স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। জখমদের মধ্যে অনেকের অবস্থা খুবই সঙ্গীন। তাই মৃতের সংখ্যা আর বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: ভারতের পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বিগ্ন, পর্যটকদের সতর্ক করল ফ্রান্স, ব্রিটেন-সহ একাধিক দেশ]

 

পুলিশ সূত্রে খবর, ভক্তপুর থেকে ৪০ জনের বেশি তীর্থযাত্রী নিয়ে বাসটি কালিনচক মন্দিরে গিয়েছিল। আজ সকালে ফেরার সময় আচমকা দুর্ঘটনাটি ঘটে। রাস্তা থেকে ৫০০ মিটার নিচে পড়ে উলটে যায়। প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে চালকের অন্যমনস্কতার কারণেই দুর্ঘটনাটি ঘটেছে। তবে বিস্তারিত তদন্তের পরেই আসল সত্য সামনে আসবে। মৃতদেহগুলি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানোর পাশাপাশি জখমদের হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। তাঁদের  মধ্যে অনেকের অবস্থাই খুব খারাপ বলে ডাক্তাররা জানিয়েছেন।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement