৫ আশ্বিন  ১৪২৬  সোমবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বয়ফ্রেন্ডের পাশের সিটে বসার জায়গা পাননি তিনি৷ আর সেই রাগে বিমানসেবিকার মুখে গরম জল ছুঁড়ে মারলেন এক চিনা মহিলা যাত্রী৷ সম্প্রতি এই অমানবিক ঘটনাটি ঘটেছে এয়ার এশিয়ার একটি বিমানে৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ভয়াবহ ঘটনাটির বর্ণনা দিয়েছেন, আক্রান্ত বিমানসেবিকার এক সহকর্মী৷ যার পর ঘটনার কড়া সমালোচনা করেছেন নেটিজেনরা৷

[ আরও পড়ুন: ‘আর আলোচনা নয়’, মিসাইল ছুঁড়ে দক্ষিণ কোরিয়াকে বার্তা কিমের  ]

নুরালিয়া মাজলান নামের ওই বিমানসেবিকা সোশ্যাল মিডিয়ায় জানান, সম্প্রতি তাঁর সহকর্মীর সঙ্গে যা ঘটছে, তা ভাবলেই শিউরে উঠছেন৷ একজন মানুষ কীভাবে এতটা নির্দয় হতে পারে, তা ভেবে কূল পাচ্ছেন না তিনি৷ কী ঘটেছিল সেদিন? নুরালিয়া লেখেন, বিমানে ওঠা থেকেই রণমূর্তি ধারণ করেছিলেন চিনা ওই মহিলা যাত্রী৷ প্রথমে বিভিন্ন খুঁটিনাটি বিষয় নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করতে থাকেন তিনি৷ তারপর ইস্যু করেন বসার আসনকে৷ তাঁর দাবি ছিল, বয়ফ্রেন্ডের পাশের সিটে বসবেন৷ কিন্তু, দাবি পূরণ না হওয়ায়, ক্ষোভে ফুঁসতে থাকেন তিনি৷ অত্যন্ত খারাপ ব্যবহার করতে থাকেন বিমানকর্মীদের সঙ্গে৷ অশ্রাব্য গালিগালাজ দিতে থাকেন৷ তাকে বোঝানোর চেষ্টা করলে, রাগের মাত্রা আরও বাড়তে থাকে৷ এবং এসবের মধ্যেই রাগের ভয়ংকর বহিঃপ্রকাশ ঘটান তিনি৷ ‘কাপ নুডলসে’র গরম জল ছুঁড়ে মারেন এক বিমানসেবিকার গায়ে৷

[ আরও পড়ুন: পাক-অধিকৃত কাশ্মীর থেকে ভারতে হামলার ছক, প্রকাশ্যে জেহাদি ভিডিও   ]

নুরালিয়ার বর্ণনা অনুযায়ী, তারপরেও কমেনি ওই মহিলার রাগ৷ এরপরও বিমানসেবিকাকে মারতে যান তিনি৷ কিন্তু অন্যান্যরা আটকে দিলে, তা করতে সক্ষম হননি অভিযুক্ত যাত্রী৷ যদিও পরে ক্ষমা চেয়ে নেন তিনি৷ সাফাই দিয়ে জানান, রাগের বশে বিমানসেবিকার গায়ে গরম জল ছুঁড়েছেন তিনি৷ ইচ্ছাকৃত একাজ করতে চাননি৷ কিন্তু মহিলার বিরুদ্ধে সরব হন অন্য বিমান যাত্রীরা৷ চির জীবনের মতো মহিলাকে নিষিদ্ধ করার দাবিতে অনেকেই এয়ার এশিয়া কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি করেন৷ ঘটনার নিন্দায় সরব হয়েছেন নেটিজেনরাও৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং