BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

জ্বলছে বালোচিস্তান, মারমুখী জনতার ভয়ে পলায়ন পাক সেনার

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: June 11, 2020 2:27 pm|    Updated: June 11, 2020 2:27 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বালোচিস্তানে ক্রমেই জোরাল হচ্ছে স্বাধীনতার দাবি। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে পাকিস্তানি ফৌজের অমানুষিক অত্যাচার। এহেন উত্তপ্ত পরিস্থিতিতে বুধবার বালোচিস্তানে ব্রবচাহ এলাকায় পাক ফৌজের বিরুদ্ধে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ দেখতে শুরু করে হাজার হাজার মানুষ। পাক সেনার গাড়ি ও বাঙ্কারে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। পরিস্থিতি এমন জায়গায় পৌঁছায় যে মারমুখী জনতার ভয়ে ঘাঁটি ছেড়ে পালিয়ে যান জওয়ানরা।

[আরও পড়ুন: ইমরানের জনপ্রিয়তায় ভাটা, ফের পাকিস্তানের রাশ ধরতে চলেছে ফৌজ!]

স্বাধীন বালোচিস্তানের দাবিতে বহুদিন থেকে লড়াই চালাচ্ছে বিদ্রোহী সংগঠন ‘বালোচ লিবারেশন আর্মি’। পালটা নিরীহ বলোচদের উপর অমানুষিক অত্যাচার চালাচ্ছে পাকিস্তানি ফৌজ। গত মাসে তুরবাট শহরে এক মহিলা ও তাঁর চার বছরের শিশুকে গুলি করে হত্যা করে পাকিস্তান সেনার মদতপুষ্ট জঙ্গিরা। তারপর থেকেই ক্ষোভের আগুন আর প্রবলভাবে জ্বলে উঠেছে বালোচিস্তানে। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই হত্যার বিচার চেয়ে শুরু হয়েছে আন্দোলন। সব মিলিয়ে ক্রমে জোরাল হচ্ছে স্বাধীনতার দাবি।

শিশু হত্যায় পাকিস্তানের বিরুদ্ধে গর্জে উঠেছে ‘বলোচ রিপাবলিকান পার্টি’ (BRP)। তাদের অভিযোগ, প্রদেশটির সম্পদ হাতিয়ে নিতে বাসিন্দাদের গণহত্যায় মেতে উঠেছে পাকিস্তান আর্মি। গত মে মাসেই বালোচিস্তানে বিদ্রোহীদের দু’টি পৃথক হামলায় অন্তত সাতজন পাক সেনার মৃত্যু হয়। রাজধানী কোয়েটা থেকে প্রায় ৫৫ কিলোমিটার দূরে পির ঘাইব এলাকায় পাক সেনার এক টহলদার বাহিনীকে নিশানা করে বিদ্রোহীরা।

উল্লেখ্য, উল্লেখ্য, ২০১৫-তে স্বাক্ষর হওয়া মউয়ের ভিত্তিতে চিন-পাকিস্তানের মধ্যে অর্থনৈতিক করিডর বা সিপিইসি নির্মাণকার্য শুরু হয়েছে৷ চিনের প্রস্তাবিত ‘ওয়ান বেল্ট, ওয়ান রোড’ নীতির উপর ভিত্তি করে, তাদের অর্থ সাহায্যেই এই করিডর তৈরি হচ্ছে৷ পাকিস্তানের গদর পোর্ট থেকে চিনের শিনজিং প্রদেশ পর্যন্ত মোট ২,০০০ কিলোমিটার দীর্ঘ এই পথটি তৈরি করা হচ্ছে৷ এই করিডর নিয়ে প্রথম থেকেই বিক্ষোভ প্রদর্শন করে আসছেন বালোচিস্তান-সহ গিলগিট-বালতিস্তান ও পিওকে-র নাগরিকরা৷ অভিযোগ, পেশিশক্তির জোরে তাঁদের বাসভূমি কেড়ে নিয়ে এই করিডর তৈরি করছে পাকিস্তান৷ যাতে পূর্ণ মদত দিচ্ছে চিন৷ এই অভিযোগে দীর্ঘদিন ধরেই পাক প্রশাসনের বিরুদ্ধে আন্দোলন চালাচ্ছেন বালোচ নাগরিকরা এবং তাঁদের উপর অকথ্য অত্যাচার চালাচ্ছে পাক সেনা৷

[আরও পড়ুন: জুয়া ‘খেলে’ গ্রেপ্তার গাধা, পাকিস্তানি পুলিশের কাণ্ডে হাসির রোল নেটদুনিয়ায়]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement