Advertisement
Advertisement
Galwan Blunder

গালওয়ানের ব্যর্থতা লুকোতে মৃত সেনাদের শেষকৃত্য করতে দেয়নি চিন, বলছে মার্কিন রিপোর্ট

এই বিষয়ে বেজিং চুপ থাকায় সন্দেহ আরও বেড়েছে।

China Denies Burials For Soldiers To Cover Up Galwan Blunder: Report

ফাইল ফটো

Published by: Soumya Mukherjee
  • Posted:July 14, 2020 5:14 pm
  • Updated:July 14, 2020 5:14 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লাদাখের গালওয়ান (Galwan) উপত্যকায় হওয়া সংঘর্ষের জেরে ২০ জন ভারতীয় জওয়ানের শহিদ হওয়ার কথা গোটা বিশ্ব জানে। কিন্তু, কেউ কী জানে সেইদিনের সংঘর্ষের ফলে ঠিক কতজন সেনা মারা গিয়েছিল চিনের? কতজনই বা হয়েছিল জখম? ভারত বা মার্কিন গোয়েন্দাদের তরফে বিভিন্ন সংখ্যার কথা বলা হলেও আজ পর্যন্ত এই বিষয় নিয়ে মুখ খোলেনি বেজিং। মার্কিন গোয়েন্দাদের দাবি, গালওয়ানের ব্যর্থতা সর্বসমক্ষে না আনতেই মুখে কুলুপ এঁটেছে শি জিনপিং সরকার। তাই মৃত সেনাদের পরিবারকে তাঁদের শেষকৃত্যও করতে দেয়নি।

সম্প্রতি এই সংক্রান্ত একটি রিপোর্টে মার্কিন গোয়েন্দারা উল্লেখ করেছেন, গত ১৫ জুন পূর্ব লাদাখের ওই ঘটনার পর ভারত তাদের ২০ জন জওয়ানের শহিদ হওয়ার কথা স্বীকার করে নেয়। সারা দেশজুড়ে নাগরিকরা ওই জওয়ানদের শহিদের মর্যাদা দেওয়ার পাশাপাশি ভারত সরকারের তরফেও শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও শহিদদের উদ্দেশ্যে শ্রদ্ধাঞ্জলি দেন। তাঁদের পরিবারের প্রতি প্রকাশ্যে আন্তরিক সমবেদনাও জানান। এমনকী লাদাখে গিয়ে সেনা জওয়ানদের সঙ্গে দেখা করার পাশাপাশি লেহ-এর হাসপাতালে ভরতি থাকা জখমদের সঙ্গেও দেখা করেন।

Advertisement

[আরও পড়ুন: দক্ষিণ চিন সাগরে চিনের দাবি উড়িয়ে দিল আমেরিকা, পালটা তোপ বেজিংয়ের ]

কিন্তু, এই ঘটনার পর প্রায় একমাস কেটে গেলেও চিন (China) -এর কতজন সেনা মারা গিয়েছে তা সরকারিভাবে ঘোষণা করেনি বেজিং। এই নিয়ে কোনও কথাও শোনা যায়নি তাদের রাষ্ট্রপতি শি জিনপিং বা কোনও শীর্ষ নেতার মুখ থেকে। শুধু তাই নয়, গোটা বিশ্বের কাছে নিজেদের ব্যর্থতা গোপন করতে মৃত সেনাদের শেষকৃত্য করতে দেয়নি তারা। রীতিমতো ভয় দেখিয়ে চুপ করিয়ে রাখা হয়েছে মৃতদের পরিবারকে। কোনও কোনও সৌভাগ্যবান জিনপিং প্রশাসনের হাতেপায়ে ধরে নিজেদের প্রিয়জনের মৃতদেহের শেষকৃত্য করেছেন লোকচক্ষুর আড়ালে কোনও নির্জনে।

Advertisement

[আরও পড়ুন: কূটনৈতিকদের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি নিয়ে ফের শুরু আমেরিকা ও চিনের সংঘাত]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ