BREAKING NEWS

১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  শনিবার ২৮ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

২৪ ঘণ্টায় প্রায় দেড় হাজার মৃত্যু, করোনা আতঙ্কে ত্রস্ত মার্কিন মুলুক

Published by: Bishakha Pal |    Posted: April 4, 2020 9:15 am|    Updated: April 4, 2020 9:41 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মার্কিন মুলুকে জাল বিস্তার করছে করোনা। এখানকার পরিস্থিতি ইটালির থেকেও ভয়াবহ হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা। গত ২৪ ঘণ্টায় আমেরিকায় করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রায় দেড় হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে। জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটিট ট্র্যাকার (Johns Hopkins University tracker) সম্প্রতি এই খবর প্রকাশ করেছে। তারপর থেকেই কপালে ভাঁজ হোয়াউট হাউজের। হাজার চেষ্টা সত্ত্বেও ঠেকানো যাচ্ছে না প্রাণঘাতী এই ভাইরাসকে। এখনও পর্যন্ত আমেরিকায় মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৭ হাজার।

জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটিট ট্র্যাকারের তরফে জানানো হয়েছে, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে আটটা নাগাদ আমেরিকায় করোনায় যাঁদের মৃত্যু হয়েছে তাঁদের হিসাব নেওয়া হয়। শুক্রবার ওই একই সময় আবার মৃতদের সংখ্যা দেখা হয়। তখনই জানা যায় বৃহস্পতিবারের তুলনায় শুক্রবার মৃতের সংখ্যা বেড়েছে ১ হাজার ৪৮০ জন। ২৪ ঘণ্টার নিরিখে এই পরিসংখ্যান যে মাথা ঘুরিয়ে দেওয়ার মতো, তাতে সন্দেহ নেই। বর্তমানে আমেরিকায় মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৭ হাজার। আক্রান্ত ২ লক্ষ ৭৭ হাজারেরও বেশি। তবে স্বস্তির কথা মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের শরীরে যে করোনা ভাইরাস বাসা বেঁধেছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছিল, তা হয়নি। দু’বার সোয়াব পরীক্ষাতে ট্রাম্পের শরীরে ভাইরাসের অস্তিত্ব মেলেনি।

[ আরও পড়ুন: ভারতে লকডাউন চলতে পারে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত! মার্কিন সংস্থার রিপোর্টে বাড়ছে উদ্বেগ ]

তবে অতি সামান্য হলে ও করোনা যুদ্ধে ঘুরে দাঁড়িয়েছে ইটালি ও স্পেন। গত কয়েক দিনের তুলনায় মৃত্যুর হার কমেছে দু’জায়গাতেই। শনিবারের পরিসংখ্যান অনুযায়ী ইটালিতে মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১৪ হাজার ও স্পেনে ১১ হাজার। দুই দেশেই আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১ লক্ষ ১৯ হাজার। স্পেনের ডেপুটি স্বাস্থ্য অধিকর্তা জানান, দেশে আক্রান্তের সংখ্যা ৭ শতাংশ বেড়েছে। যা গত এক সপ্তাহের তুলনায় সবচেয়ে কম। এই তথ্যের উপর ভিত্তি করেই আশায় বুক বাঁধছে স্পেন। সূত্রের খবর, করোনা সংক্রমণ রুখতে দেশের লকডাউন আরও কয়েক সপ্তাহ বাড়ানো হতে পারে। ইটালিতেও গত কয়েকদিনের তুলনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃতের হার কিছুটা কমেছে। যদিও স্পেনের তুলনায় ইতালি আরও ধীর গতিতে উঠে দাঁড়াচ্ছে। মৃতের সংখ্যা সামান্য কমলেও অবস্থার তেমন কোনও উন্নতি হয়নি। এখানেও লকডাউন কয়েক সপ্তাহ বাড়ানো হবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন।

এদিকে আন্তর্জাতিক আদালতে চিনের বিরুদ্ধে দায়ের হয়েছে মামলা। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বহুদিন ধরেই বলে আসছেন, করোনা নিয়ে অনেক তথ্য গোপন করেছে চিন। আক্রান্ত ও মৃত্যু নিয়ে অনেক তথ্যই তারা প্রকাশ করেনি। সম্প্রতি আরও অনেক দেশ সেই একই অভিযোগ তুলেছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে প্রায় চারমাস হয়ে গেল জাল বিস্তার করতে শুরু করেছে করোনা। ইতিমধ্যেই একে বিশ্বব্যাপী মহামারি ঘোষণা করা হয়েছে। কিন্তু চারমাস পরেও প্রকোপ কমা তো দূরের কথা, ক্রমশই ভয়াবহ হচ্ছে করোনা। গোটা ইউরোপ ও আমেরিকা এর কবলে। বিশ্বে আক্রান্তের সংখ্যা ১১ লক্ষ ছুঁইছুঁই। মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৫৮ হাজার। তবে স্বস্তির কথা বিশ্বজুড়ে এখনও পর্যন্ত ২ লক্ষের ও বেশি মানুষ এই মারণ ভাইরাসকে হারিয়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

[ আরও পড়ুন: সস্ত্রীক করোনা আক্রান্ত ইজরায়েলের স্বাস্থ্যমন্ত্রী, কোয়ারেন্টাইনে গেলেন নেতানিয়াহু ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement