BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘আয়াতোল্লাদের মদত দিচ্ছেন’, ইরান ইস্যুতে ইউরোপীয় দেশগুলিকে তোপ আমেরিকার

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: August 21, 2020 1:38 pm|    Updated: August 21, 2020 1:40 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ইরানকে কেন্দ্র করে আমেরিকা ও ইউরোপীয় দেশগুলির মধ্যে চওড়া হচ্ছে ফাটল। বৃহস্পতিবার, আণবিক চুক্তি ভঙ্গের অভিযোগে রাষ্ট্রসংঘে তেহরানের উপর ফের নিষেধাজ্ঞা চাপানোর প্রস্তাব পেশ করে আমেরিকা (US)। কিন্তু সেই প্রস্তাবে সায় দেয়নি ইউরোপের দেশগুলি। আর তাতেই চটে গিয়েছেন মার্কিন বিদেশ সচিব মাইক পম্পেও। তাঁর অভিযোগ, ‘আয়াতোল্লাদের মদত দিচ্ছে’ ইউরোপের দেশগুলি।

[আরও পড়ুন: নিউ নর্মালে ‘নমস্তে’ই দস্তুর, মর্কেলকে ভারতীয় কায়দায় অভ্যর্থনা জানালেন ম্যাক্রোঁ]

রাষ্ট্রসংঘে আমেরিকার অভিযোগ, ২০১৫ সালে স্বাক্ষরিত আণবিক চুক্তি ভঙ্গ করেছে ইরান (Iran)। এখনও দূরপাল্লার মিসাইল বানিয়ে চলেছে দেশটি। তাই চুক্তির একটি বিশেষ ধারা ব্যবহার করে তেহরানের বিরুদ্ধে ফের নিষেধাজ্ঞা জারি করা হোক। এই মর্মে নিরাপত্তা পরিষদে একটি বিশেষ প্রক্রিয়া শুরু করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। কিন্তু এই প্রস্তাব মানতে নারাজ ব্রিটেন, ফ্রান্স ও জার্মানি। তাদের বক্তব্য, যেহেতু একতরফাভাবে ওই চুক্তি থেকে আগেই সরে গিয়েছে আমেরিকা। তাই সেটির দোহাই দিয়ে ইরানের উপর নিষেধাজ্ঞা লাগু করার কোনও অধিকার নেই ওয়াশিংটনের।

এদিকে, ইরানের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপে সমর্থন না পেয়ে মার্কিন বিদেশ সচিব মাইক পম্পেও বলেন, “অন্য কোনও দেশের সাহস নেই। ফলে একমাত্র আমরাই এমন একটা প্রস্তাব পেশ করেছি। কিন্তু বাকিরা আয়াতোল্লাদের পাশে দাঁড়িয়েছে। আণবিক চুক্তির শর্ত ভঙ্গ করা হলে ইরানের উপর নিষেধাজ্ঞা চাপাতে সমস্ত সম্ভব পদক্ষেপ করবে আমেরিকা।” তিনি আর দাবি করেন, ইরানের উপর হাতিয়ার সংক্রান্ত নিষেধাজ্ঞা না চাপলে খুব ভুল হবে। ইরানকে ট্যাংকের মতো কোনও যুদ্ধের হাতিয়ার বিক্রি করার অনুমতি দেবে না আমেরিকা।

উল্লেখ্য, আণবিক চুক্তি মতে আণবিক অস্ত্র তৈরি না করার শর্তে ইরানের উপর আর্থিক ও বাণিজ্যিক সমস্ত নিষেধে শিথিল করেছিল নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচ স্থায়ী সদস্য–আমেরিকা, চিন, ফ্রান্স, রাশিয়া, ব্রিটেন। চুক্তিতে সহমতি জানিয়েছিল জার্মানিও। কিন্তু ক্ষমতায় এসেই বারাক ওবামার আমলে স্বাক্ষরিত চুক্তিটি থেকে একতরফাভাবে বেরিয়ে আসেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। এবার ফের সেই চুক্তির দোহাই দিয়ে ইরানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা চাপানোর প্রস্তাব এনেছেন তিনি।

[আরও পড়ুন: অন্ধকার জমানা খতম করার ডাক, ট্রাম্পকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়লেন জো বিডেন]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement