BREAKING NEWS

৯ কার্তিক  ১৪২৮  বুধবার ২৭ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

স্বাধীনতার পর প্রথম, ইসলামাবাদে শুরু হিন্দু মন্দির তৈরির কাজ

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: June 25, 2020 2:34 pm|    Updated: June 25, 2020 2:34 pm

Foundation stone for Islamabad’s first Hindu temple laid

এখানেই তৈরি হবে ওই মন্দির

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দীর্ঘদিন ধরেই পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদে একটি হিন্দু মন্দির তৈরির দাবি জানাচ্ছিলেন স্থানীয় হিন্দুরা। অবশেষে তাতে সাড়া দিল ইমরানের প্রশাসন। এর ফলে নজির সৃষ্টি করে এই প্রথম ইসলামাবাদে শুরু হল হিন্দু মন্দির ( Hindu temple) তৈরির কাজ।

মঙ্গলবার ইসলামাবাদের এইচ-৯/২ সেক্টরে মাটি খুঁড়ে কৃষ্ণ মন্দির স্থাপনের কাজ শুরু করেন পাকিস্তানের মানবাধিকার বিষয়ক সম্পাদক লাল চাঁদ মাহি। পরে এই সংক্রান্ত ছবি টুইটারে পোস্ট করেন তিনি। এপ্রসঙ্গে টুইট করেন, ইসলামাবাদের এটাই প্রথম হিন্দু মন্দির। পাশাপাশি মাটি খোঁড়ার সময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত হিন্দু জনতাকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ১৯৪৭ সালের আগে ইসলামাবাদ বা তার সংলগ্ন এলাকায় প্রচুর হিন্দু মন্দির ছিল। বিভিন্ন জায়গায় থাকা ভাঙাচোরা মন্দিরগুলি তারই সাক্ষ্য বহন করেন। এর মধ্যে সাহিদপুর গ্রাম ও রাওয়াল লেকের কাছে অবস্থিত কোরাঙ্গ নদী সংলগ্ন পার্বত্য এলাকায় কিছু মন্দিরের ধ্বংসাবশেষ রয়েছে। কিন্তু, স্বাধীনতার পর এই প্রথম ইসলামাবাদে কোনও হিন্দু মন্দির তৈরির কাজ শুরু হলে। তবে এখনও হিন্দুদের মৃতদেহ সৎকারের জন্য জায়গার অভাব রয়েছে।

[আরও পড়ুন: ‘পাকিস্তানে জামাই আদরেই রয়েছে মাসুদ আজহার’, আমেরিকার দাবিতে বিপাকে ইসলামাবাদ]

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ইসলামাবাদে বসবাসকারী হিন্দুরা দীর্ঘদিন আবেদন করার পর ২০১৭ সালে ক্যাপিটাল ডেভেলপমেন্ট কর্তৃপক্ষ (Capital Development Authority) হিন্দু কাউন্সিলকে ২০ হাজার বর্গফুট জমি দিয়েছিল। পাশাপাশি পাকিস্তান সরকারের তরফে মন্দির তৈরির জন্য ১০ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছিল। কিন্তু, এতদিন বিভিন্ন কারণে মন্দির তৈরির কাজ আটকে ছিল। মঙ্গলবার থেকে সব বাধা কাটিয়ে তা শুরু হল। মন্দিরটির পাশে হিন্দুদের মৃতদেহ সৎকারের জন্য একটি জায়গাও নির্দিষ্ট করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: এখনও সন্ত্রাসবাদীদের ‘নিরাপদ আশ্রয়দাতা’ পাকিস্তান, মার্কিন রিপোর্টে অস্বস্তিতে ইমরান প্রশাসন]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement