BREAKING NEWS

১ কার্তিক  ১৪২৮  মঙ্গলবার ১৯ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মসজিদ থেকে জল আনার শাস্তি! পাকিস্তানে আক্রান্ত হিন্দু পরিবার

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: September 21, 2021 9:50 am|    Updated: September 21, 2021 12:28 pm

Hindu family in Pakistan assaulted for fetching water from mosque | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পাকিস্তানে সংখ্যালঘু নিপীড়নের ঘটনা চরমে। এবার মসজিদ থেকে পানীয় জল আনার ‘অপরাধে’ হামলার মুখে পড়ল এক হিন্দু পরিবার। ঘটনাটি ঘটেছে পাক পাঞ্জাবের রহিময়ার খান শহরে।

[আরও পড়ুন: বিস্ফোরণের পর ইসলামিক স্টেটকে হুমকি তালিবানের, এবার জেহাদিদের মধ্যে গৃহযুদ্ধের আশঙ্কা]

পাক সংবাদমাধ্যম Dawn-এ প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রহিময়ার খান শহরের বাসিন্দা আলমরাম ভিল স্ত্রী ও পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সঙ্গে একটি স্থানীয় তুলোর খেতে কাজ করছিলেন। অভিযোগ, কাজ করার পর কাছের একটি মসজিদ থেকে পানীয় জল আনতে গেলে তাঁদের উপর চড়াও হয় সংখ্যাগুরু সম্প্রদায়ের বেশ কয়েকজন মানুষ। শুধু তাই নয়, ওই হিন্দু পরিবারকে একটি ঘরে বন্ধ করে অত্যাচার চালানো হয়। হামলাকারীদের বক্তব্য, জল এনে মসজিদের ‘পবিত্রতা নষ্ট করেছে’ ওই হিন্দু পরিবার।

আক্রান্ত আলমরাম ভিল অভিযোগ করেন, হামলাকারীরা প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের দল তেহরিক-ই-ইনসাফের সদস্য। তাই তাদের বিরুদ্ধে মামলা নিতে অস্বীকার করে পুলিশ। প্রতিবাদে থানার সামনেই অবস্থান বিক্ষোভে বসেন তিনি। অবশেষে শাসকদলের এক আইনপ্রণেতা জাভেদ ওয়ারিচের মদতে পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করতে সক্ষম হন তিনি। জেলার পুলিশপ্রধান আসাদ সরফরাজ জানিয়েছেন, বিষয়টি খতিয়ে দেখছেন তিনি।

উল্লেখ্য, পাকিস্তানে হিন্দু তরুণীদের অপহরণ, ধর্ষণ ও ধর্মান্তকরণের মতো ঘটনা ক্রমশ বাড়ছে। হামলা হচ্ছে হিন্দুদের মন্দিরে। আর অধিকাংশ ক্ষেত্রে এসব দেখেও কার্যত নীরব দর্শকের ভূমিকা নেয় পুলিশ। গত জানুয়ারি মাসে হিন্দুদের নিপীড়নের বিরুদ্ধে সরব হয়ে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে একটি চিঠি দেয় ‘হিন্দু ফোরাম অফ ব্রিটেন’। এই ফোরামের ছত্রছায়ায় রয়েছে বেশ কয়েকটি ব্রিটিশ হিন্দু সংগঠন। জনসনের কাছে হিন্দু সংগঠনগুলির আবেদন, অবিলম্বে একটি উচ্চপর্যায়ের সরকারি কমিটি তৈরি করা হোক। সেই কমিটি পাকিস্তানে সংখ্যালঘুদের উপর অত্যাচার নিয়ে তদন্ত করবে। রাষ্ট্রসংঘের নেতৃত্বে গণতান্ত্রিক দেশগুলিকে নিয়ে একইভাবে তদন্তের দাবি তুলেছেন সংগঠনগুলির কর্তারা।

[আরও পড়ুন: রাশিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ে বন্দুকবাজের হানা, গুলিবৃষ্টিতে নিহত অন্তত ৮]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement