BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

হাজারের বেশি পাকিস্তানি অনুপ্রবেশকারীকে দেশ থেকে তাড়াচ্ছে ইরান

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: September 13, 2020 2:28 pm|    Updated: September 13, 2020 4:32 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সৌদি আরবের পরিবর্তে পাকিস্তানকে মুসলিম বিশ্বের নেতা বানাতে চায় চিন। গত কয়েকদিন ধরে প্রকাশ্যে এবিষয়ে মুখ খুলতেও শুরু করেছেন শি জিনপিং প্রশাসনের আধিকারিকরা। এর জন্য পাকিস্তান, ইরান ও তুরস্ককে নিয়ে একটা জোট তৈরিরও চেষ্টা করছে। ঠিক এই সময়ই হাজারের বেশি পাকিস্তানি অনু্প্রবেশকারীকে নিজেদের দেশ থেকে তাড়িয়ে দিচ্ছে তেহরান।

ইরানের সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে, দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে হাজারের বেশি পাকিস্তানি অনুপ্রবেশকারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। বর্তমানে তাদের ছাঘাই জেলার তাফতান সীমান্তে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। রবিবার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত পাঁচ দিনে ২০০ জন করে মোট এক হাজার অনুপ্রবেশকারীকে পাকিস্তানি কর্তৃপক্ষের হাতে তুলে দেওয়া হবে। ওই অনুপ্রবেশকারীদের বেশিরভাগ পাকিস্তান অধিকৃত পাঞ্জাব থেকে কোয়েট্টা-তাফতান সীমান্ত পেরিয়ে বৈধ কাগজপত্র ছাড়াই ইরানে (Iran) ঢুকেছিল। এই কাজে তাদের সাহায্য করেছিল মানব পাচারকারীরা। ইরান থেকে ইউরোপীয় ইউনিয়নের দেশগুলিতে যাওয়ার চেষ্টা করার সময় ওই অনুপ্রবেশকারীদের গ্রেপ্তার করা হয়।

[আরও পড়ুন: সোশ্যাল মিডিয়ায় সেনার সমালোচনা, পাকিস্তানে গ্রেপ্তার সাংবাদিক ]

ইরানের ছাঘাই (Chagai) জেলার দালবান্দিন এলাকার এসিপি মহম্মদ জাভেদ ডোমকি বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরেই পাকিস্তানের বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রচুর মানুষ কাজের সন্ধানে ইরানে অবৈধভাবে অনুপ্রবেশ করে। এদের মধ্যে বেশিরভাগকে ইউরোপের দেশগুলিতে যাওয়ার সময় আটক করা হয়। ফেডারেল ইনভেস্টিগেসন এজেন্সি (FIA) -এর তদন্তের পর তাদের পাকিস্তানি কর্তৃপক্ষের হাতে তুলে দেওয়া হয়। মানব পাচার ছাড়াও কোয়েট্টা-তাফতান আরসিডি হাইওয়ে দিয়ে বিভিন্ন ধরনের জিনিস পাচার করা হয়। গত বৃহস্পতিবারই পাডাগ চেকপয়েন্টে ১২ জন অনুপ্রবেশকারী ও নেশার জিনিস-সহ একটি ট্রাককে আটক করা হয়।’

[আরও পড়ুন:​ ‘অক্সফোর্ডের করোনা ভ্যাকসিন নিরাপদ’, দাবি করে ট্রায়াল চালুর অনুমতি দিল MHRA]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement