BREAKING NEWS

১ আষাঢ়  ১৪২৮  বুধবার ১৬ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বাইডেনের যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব উড়িয়ে গাজায় আরও তীব্র হামাস-ইজরায়েলের লড়াই

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: May 19, 2021 8:56 am|    Updated: May 19, 2021 8:56 am

Israel and Hamas trade attacks after Biden expresses support for ceasefire | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কিছুতেই থামছে না হামাস ও ইজরায়েলের রক্তক্ষয়ী লড়াই। বিমান হানা ও রকেট হামলায় একে অপরকে নাজেহাল করে তুলেছে উভয়পক্ষই। এহেন পরিস্থিতিতে সংঘর্ষবিরতির জন্য ময়দানে নেমেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন (Joe Biden)। কিন্তু তাঁর যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব সেই অর্থে সাড়া ফেলেনি কোনও পক্ষের কাছেই।

[আরও পড়ুন: আরব-ইহুদি যুদ্ধে নয়া ফ্রন্ট, এবার লেবাননে বোমাবর্ষণ ইজরায়েলের]

সোমবার গাজায় লড়াই থামানোর জন্য ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর সঙ্গে ফোনে আলোচনা করেন আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। পরে হোয়াইট হাউসের তরফে বিবৃতি জারি করে জানানো হয় যে ইজরায়েল ও প্যালেস্তাইনের মধ্যে যুদ্ধবিরতির পক্ষে সওয়াল করেছেন বাইডেন। ওই এলাকায় শান্তি ফিরিয়ে আনার লক্ষ্যে মিশর ও অন্যান্য মধ্যস্থকারী দেশের সঙ্গে আলোচনায় বসবে ওয়াশিংটন। তবে নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করে ওয়াশিংটন সাফ জানিয়েছে, “আত্মরক্ষার সম্পূর্ণ অধিকার রয়েছে ইজ়রায়েলের।” বিশ্লেষকদের মতে, ইজরায়েল ও হামাসের মধ্যে সংঘর্ষ থামাতে তেমন জোর দিচ্ছে না আমেরিকা। পালটা, নেতানিয়াহু সরকারের পক্ষেই সওয়াল করছে হোয়াইট হাউস। মঙ্গলবার বাইডেনের শান্তির প্রস্তাবের পরও ৬২টি যুদ্ধবিমান থেকে গাজায় প্রায় ১০০টি মিসাইল ছুঁড়েছে ইজরায়েলের সেনাবাহিনী। তাদের নিশানা ছিল ‘মেট্রো’। বলে রাখা ভাল, গাজায় মাটির নিচে সুড়ঙ্গের জাল তৈরি করে হাতিয়ার ও যোদ্ধাদের চলাফেরার পথ তৈরি করেছে জঙ্গি সংগঠন হামাস। ওই নেটওয়ার্ককেই ‘মেট্রো’ নামে অভিহিত করেছে ইজরায়েল।

এদিকে, প্রায় ২০ লক্ষ মানুষের বাসস্থান গাজা শহর চরম ক্ষতির মুখে পড়েছে। প্রায় ৫০০টি বহুতল বিমান হানায় ভেঙে গুঁড়িয়ে গিয়েছে। মঙ্গলবার থেকে ত্রাণ নিয়ে আসা ট্রাক গাজায় ঢুকতে দিচ্ছে না ইজরায়েলের সেনাবাহিনী। এপর্যন্ত সংঘর্ষে প্যালেস্তাইনের ২১২ জন নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। ইজরায়েল লক্ষ করে কমপক্ষে ৩ হাজার রকেট ছুঁড়েছে হামাস। এতে মৃত্যু হয়েছে ইহুদি দেশটির অন্তত ১২ জন নাগরিকের। এর আগে ইজরায়েল সেনাবাহিনীর মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল হিদাই জিলবারমান আজ বলেন, “হামাসের সাম্প্রতিকতম ঘাঁটিগুলির তালিকা আমরা তৈরি করে রেখেছি। সেগুলি লক্ষ্য করেই রকেট ছোঁড়া হচ্ছে।” তিনি আরও বলেন, “ইজরায়েলি ডিফেন্স ফোর্সেস আদপেই অস্ত্রসংবরণের কথা ভাবছে না। আমরা ক্ষেপণাস্ত্র বর্ষণ চালিয়ে যাব।”

[আরও পড়ুন: করোনার ভারতীয় স্ট্রেনকে রুখতে হাতিয়ার হতে পারে দুই বিদেশি ভ্যাকসিন, দাবি গবেষণায়]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement