BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

রবীন্দ্রজয়ন্তীতে বিশেষ সম্মান, কবিগুরুর নামে রাস্তা ইজরায়েলে

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: May 8, 2020 5:33 pm|    Updated: May 8, 2020 5:33 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তিনি আদতেই বিশ্ববন্দিত। গোটা বিশ্বের কাছে পূজিত। ভূ-ভারতের বাইরেও যে তাঁর কালজয়ী সৃষ্টির জন্য তাঁকে স্মরণ করা হয়, কবিগুরুর ১৫৯তম জন্মদিনে আরও একবার তা প্রমাণিত হল। কবিগুরুর জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আজ বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে তাঁকে স্মরণ করা হচ্ছে। নোবেল কমিটির তরফেও অনন্যভাবে রবিস্মরণ করা হল। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে বিশেষ সম্মান প্রদর্শনের জন্য দূরদেশেও তাঁর নামে রাস্তার নামকরণ করা হল। শিল্পী এবং তাঁর সৃষ্টি যে সীমান্তের উর্দ্ধে, যা মানে না কোনও কাঁটাতার, সেই বার্তাই দিল ইজরায়েল সরকার।

বিদেশের বিভিন্ন জায়গায় রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের স্মরণে এর আগেও তাঁর নামে রাস্তার নামকরণ করা হয়েছে। সেই তালিকাতেই এবার সংযোজিত হল ইজরায়েলের নাম। কবিগুরুর উদ্দেশে বিশেষ সম্মান প্রদর্শনের জন্য ইজরায়েলের রাজধানী তেল আভিভের এক সরণির নাম রাখা হল রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নামে। আর কবিগুরুর জন্মজয়ন্তী উপলক্ষেই সেই আনন্দ সংবাদ প্রকাশ্যে নিয়ে এল ইজরায়েলের দূতাবাস। যার প্রমাণস্বরূপ ছবি দিয়ে একটি টুইটও করা হয়েছে তাদের তরফে।    

[আরও পড়ুন: সোশ্যাল মিডিয়ায় ইসলামবিরোধী পোস্ট, চাকরি খোয়ালেন কানাডার ভারতীয় বংশোদ্ভূত যুবক]

আজ কবিগুরুর ১৫৯তম জন্মবার্ষিকী। সার্ধশতবর্ষ অতিক্রম করার পর আজও রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর মানুষকে অনুপ্রাণিত করে চলেছেন তাঁর সৃষ্টির মধ্য দিয়ে। কালের নিয়মে সামাজিক কিংবা মানুষের মননশীলতায় পরিবর্তন এলেও রবীন্দ্রনাথ যে চিরন্তন, তা বোধহয় আর আলাদা করে বলার প্রয়োজন পড়ে না। কবিগুরু মানেই আবেগ। আর এই আবেগ যে শুধু ভারত কিংবা বাঙালির মধ্যেই আবদ্ধ নয়, তার প্রমাণ আমরা অতীতেও পেয়েছি। যখন বাঙালিরা নিজেদের মাতৃভাষাকে ব্রাত্য করে পশ্চিমী ভাষায় মেতে উঠেছে, তখন সুদূর এক জাপানবাসী শুধুমাত্র রবীন্দ্রনাথের টানেই আপন করে নিয়েছেন বাংলা ভাষাকে। যখন আর্জেন্টিনার রাজধানী বুয়েইনস এইরেসে ভ্রমণপিপাসু বাঙালি পায়চারি করতে করতে হঠাৎ ‘আর টেগোর’ লেখা রাস্তার নাম দেখতে পেয়েছে। তাঁর সৃষ্টির প্রেমে পড়ে, বিশ্ব সাহিত্য ইতিহাসে তাঁর অবদানের কথা মাথায় রেখে দূরদেশেও এই বঙ্গসন্তানের অনুরাগীর সংখ্যা নেহাত কম নয়!    

[আরও পড়ুন: করোনা আক্রান্তের সেবা করতে গিয়ে ভারতীয় বংশোদ্ভূত ডাক্তার বাবা-মেয়ের মৃত্যু]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement