২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২২ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

নেদারল্যান্ডসের আমস্টারডামে মহাত্মা গান্ধীর মূর্তিতে ভাঙচুর, তীব্র নিন্দা ভারতের

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: June 18, 2020 2:33 pm|    Updated: June 18, 2020 2:33 pm

An Images

মূর্তিটিতে সংস্কারের কাজ চলছে

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নেদারল্যান্ডসের রাজধানী আমস্টারডাম (Amsterdam) -এ ভাঙচুর করা হল মহাত্মা গান্ধীর মূর্তি। এমনকী মূর্তিটিতে লাল রং করে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ। স্থানীয় প্রশাসনের তরফে এই ঘটনার পিছনে বর্ণবৈষম্যের বিরুদ্ধে বিক্ষোভকারীদের হাত রয়েছে বলে অভিযোগ জানানো হয়েছে। যদিও অজ্ঞাত পরিচয়ের ওই দুষ্কৃতীদের এখনও গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। বিষয়টির কথা প্রকাশ্যে আসার পরেই এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করা হয়েছে ভারতের পক্ষ থেকে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, আমেরিকায় নৃশংসভাবে খুন হওয়া জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুর প্রতিবাদে বিশ্বের বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভ চলছে। এর আঁচ পড়েছে নেদারল্যান্ডসেও। কয়েকদিন ধরে রাজধানী আমস্টারডাম ছাড়াও দেশের বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন প্রচুর মানুষ। এর মধ্যেই আমস্টারডামের চার্চিলান এলাকায় থাকা মহাত্মা গান্ধী (Mahatma Gandhi) -এর মূর্তিতে একদল বিক্ষোভকারী ভাঙচুর চালান বলে অভিযোগ। এমনকী মূর্তিটিতে লাল রং করে দেওয়া হয়েছে বলেও জানা গিয়েছে। পুলিশ তদন্ত শুরু করলেও এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

[আরও পড়ুন: আফগানিস্তানের সেনাঘাঁটিতে তালিবান হামলা, মৃত কমপক্ষে ৭]

বুধবার ওই মূর্তির সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় বিষয়টি চোখে পড়ে ৭৫ বছরের এক বৃদ্ধের। এরপরই বিষয়টি স্থানীয় পুরসভা কর্তৃপক্ষকে জানান তিনি। সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে এসে মূর্তি কাপড় দিয়ে ঘিরে দেয় তারা। পরে মূর্তিটির রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব থাকা সংস্থাকে খবর দেওয়া হয়। ইতিমধ্যে মূর্তিটি পরিষ্কার করে পুরনো অবস্থায় ফিরিয়ে আনার কাজও শুরু হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে স্থানীয় পুরসভার এক আধিকারিক রুটজার গ্রুট ওয়াসনিক বলেন, ‘আমরা এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করছি। এই ধরনের মূর্তি ভাঙচুরের ঘটনাকে আমরা কখনই মেনে নিই না। মূর্তিটি পরিষ্কারের ব্যবস্থা করার পাশাপাশি এই ঘটনায় যুক্তদের খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে।’

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগে আমেরিকার ওয়াশিংটন ডিসিতেও মহাত্মা গান্ধীর মূর্তিতে ভাঙচুর চালানো হয়েছিল। সেখানেও অভিযোগ উঠেছিল জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুর ঘটনার প্রতিবাদে নামা মানুষদের বিরুদ্ধে।

[আরও পড়ুন:ফের রাষ্ট্রপতি হতে জিনপিংয়ের সাহায্য চেয়েছিলেন ট্রাম্প, দাবি প্রাক্তন মার্কিন আমলার]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement