২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৬ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

নাভালনির শরীরে মিলেছে নভিচকের মতো নার্ভ এজেন্ট, দাবি রাসায়নিক অস্ত্র বিশেষজ্ঞদের

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: October 6, 2020 5:41 pm|    Updated: October 6, 2020 8:38 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অ্যালেক্সেই নাভালনি মামলায় ক্রমেই চাপ বাড়ছে রাশিয়ার উপর। বিশেষ করে প্রশ্নের মুখে পড়েছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। ফলে এবার ড্যামেজ কন্ট্রোলে ‘তদন্তের স্বার্থে’ আন্তর্জাতিক রাসায়নিক অস্ত্র বিশেষজ্ঞদের আমন্ত্রণ জানিয়েছে মস্কো। এহেন পরিস্থিতিতে মঙ্গলবার নাভালনির শরীরে মিলেছে নভিচকের মতো নার্ভ এজেন্ট বলে জানিয়েছেন আন্তর্জাতিক রাসায়নিক অস্ত্র বিশেষজ্ঞরা।  

[আরও পড়ুন: মহাবিশ্বের রহস্য উন্মোচনের স্বীকৃতি, পদার্থবিদ্যায় নোবেল জিতলেন তিন বিজ্ঞানী]

মার্কিন সংবাদমাধ্যম ‘The Wall Street Journal’ সূত্রে খবর, ‘The Organixation for the Prohibition of Chemicals Weapons’ নামের অন্তিরজাতিক সংস্থাকে নাভালনি মামলায় তদন্তের জন্য অমন্ত্রণ জানিয়েছে মস্কো। তারপরই, মঙ্গলবার টুইট করে নাভালনির শরীরে সোভিয়েত জমানার বিষাক্ত রাসায়নিক পদার্থের অস্তিত্বের কথা জানায সংস্থাটি। উল্লেখ্য, গোটা বিশ্বে রাসায়নিক অস্ত্রভাণ্ডার ও প্রয়োগের উপর নজর রাখে এই সংস্থাটি। সোমবার এই আন্তর্জাতিক সংস্থাটি জানিয়েছে, একটি চিঠি লিখে তাদের বিশেষজ্ঞ দলকে মস্কো আসার আমন্ত্রণ জানিয়েছে পুতিন প্রশাসন। নভালনি মামলায় তদন্তের জন্যই এই আমন্ত্রণ। তবে ঠিক কী বিষয়ে এবং কোথা থেকে তদন্ত করা হবে বা করতে হবে। সেই বিষয়ে কোনও কিছু বিশদে জানায়নি রাশিয়া। ফলে গোটা বিষয় নিয়ে ধোঁয়াশা এখনও কাটেনি। 

আগস্টের ২০ তারিখ সাইবেরিয়ার টমস্ক থেকে বিমানে মস্কো ফিরছিলেন নাভালনি ( Alexei Navalny)। মাঝ আকাশে আচমকাই অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। উপায় না দেখে ওমস্ক শহরে বিমানের জরুরি অবতরণ করিয়ে শুরু হয় চিকিৎসা। নাভালনি ঘনিষ্ঠদের প্রাথমিক ধারণা, টমস্ক বিমানবন্দরে তাঁর চায়ে বিষ মেশানো হয়েছে। চিকিৎসকরা জানান, নাভালনির স্নায়ুতন্ত্র ক্রমশ দুর্বল হয়ে পড়ছিল। কোমায় আচ্ছন্ন হন তিনি। সেটা বিষের প্রভাবে বলেই ধারণা করা হচ্ছিল। এরপর নাভালনির শারীরিক অবস্থার দ্রুত অবনতি হতে থাকায় জার্মানির বার্লিনে উড়িয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানকার চিকিৎসকরা পরীক্ষানিরীক্ষার পর বিষ প্রয়োগের ব্যাপারটি নিশ্চিত করেন। তারপর সুইডেন ও ফ্রান্সের গবেষণাগারও সাফ জানায়, প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের কট্টর বিরোধী নাভালনির উপর সোভিয়েত জমানার ভয়াবহ নার্ভ এজেন্ট নভিচক প্রয়োগ করা হয়েছিল।

[আরও পড়ুন: নজরে আগ্রাসী চিন, জাপানে মার্কিন বিদেশ সচিবের সঙ্গে সাক্ষাৎ জয়শংকরের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement