BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘কোনও গবেষণাগারে করোনার সৃষ্টি হয়নি’, ফের চিনের পাশে দাঁড়াল WHO

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: April 22, 2020 8:28 am|    Updated: April 22, 2020 8:28 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনার ভাইরাস (Novel coronavirus) মানুষের সৃষ্টি। এটি চিনের ইউহানের একটি ল্যাবে তৈরি হয়েছে। বিজ্ঞানীমহলের একাংশ এবং মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের (Donald Trump) এই দাবি খারিজ করে দিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (World Health Organization)। তাঁদের দাবি করোনা ভাইরাস কোনও গবেষণাগারে তৈরি হয়নি। সম্ভবত কোন প্রাণীর শরীরেই এর উৎপত্তি। তবে, জিন বদলে ভাইরাসটি মানুষের শরীরে সংক্রমণের ক্ষমতা কীভাবে তৈরি করল, তা এখনও অস্পষ্ট। 

Corona
ফাইল ফটো

উল্লেখ্য, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প একাধিকবার দাবি করেছেন ইউহানের গবেষণাগার থেকেই ছড়িয়েছে করোনা। একাধিক বিশ্ববন্দিত গবেষকও এই দাবি করেছেন। কিন্তু WHO তা মানতে নারাজ। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সাফ কথা, যাবতীয় প্রমাণ এবং পরিস্থিতি বিচার করলে বোঝা যায় এই ভাইরাসটি কোনও গবেষণাগারে তৈরি হয়নি। মঙ্গলবার WHO-এর মুখপাত্র ফাদেলা চেইব জানিয়েছেন,”সমস্তরকম তথ্য বলছে এই ভাইরাসটি কোনও পশুর শরীরে তৈরি হয়েছে। এবং এটিকে কোনও গবেষণাগারে তৈরি করা হয়নি।” বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ওই মুখপাত্র বলছেন, নিশ্চিতভাবেই ভাইরাসটির কোনও পশু বা অন্য প্রাণী বাহক আছে। খুব সম্ভবত বাদুড়ই এর প্রাকৃতিক বাহক। কিন্তু বাদুড়ের শরীর থেকে এটি মানুষের শরীরে প্রবেশ করল তা নিয়ে গবেষণা চলছে।

[আরও পড়ুন: সহকর্মীদের চুমু খেয়ে কাজে যোগ, চিনা কারখানার আয়োজনে বিতর্কের ঝড়]

উল্লেখ্য, করোনা ভাইরাসের দাপট সবার প্রথমে দেখা যায় চিনের ইউহান প্রদেশে। সেখান থেকেই আস্তে আস্তে গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে মারক ভাইরাসটি। আপাতত চিনে এর সংক্রমণ অনেকটা নিয়ন্ত্রণে এলেও বিশ্বের অন্যান্য দেশে প্রভাব মারাত্মক। ২০১৯ সালের ডিসেম্বর থেকে ইউহানে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের বিষয়টি সামনে আসে। ইউহানের স্থানীয় একটি হাসপাতালের চিকিৎসকরা প্রথম COVID-19 ভাইরাসটিকে চিহ্নিত করেন। সংক্রমণ ঠিক কবে শুরু হয়েছে তা স্পষ্ট নয়। তবে আমেরিকার ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল বলছে, করোনায় প্রথম সংক্রমিত হন ইউহান শহরের এক চিংড়িমাছ বিক্রেতা মহিলা। নাম ওয়েই গুইশিয়ান। ২০১৯ সালের ১০ ডিসেম্বর তাঁর শরীরে করোনার উপসর্গ ধরা পড়ে।গবেষকদের ভাষায় ইনিই হলেন করোনার ‘পেশেন্ট জিরো’। কিন্তু তাঁর শরীরে করোনা সংক্রমণের কারণ এখনও স্পষ্ট নয়। 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement