BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

লাহোরে ঐতিহাসিক গুরুদ্বার ভেঙে মসজিদ বানাচ্ছে পাকিস্তান, তীব্র প্রতিবাদ ভারতের

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: July 28, 2020 2:35 pm|    Updated: July 28, 2020 2:35 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মুখে গণতন্ত্রের কথা বললেও ইসলামিক দেশগুলির নিয়ন্ত্রক শক্তি যে ‘মোল্লাতন্ত্র’ তা হেগিয়া সোফিয়া দেখিয়ে দিয়েছে। কয়েকদিন আগেই ‘আল্লা’র নামে গান্ধার সভ্যতার একটি অত্যন্ত মূল্যবান নিদর্শন ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয় পাকিস্তানে। এবার লাহোরেও একটি ঐতিহাসিক গুরুদ্বার ভেঙে সেটিকে মসজিদে পরিবর্তিত করার তোড়জোড় চলছে। এই বিষয়ে তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে ভারত (India)।

[আরও পড়ুন: তিব্বতে তৎপর লালফৌজ, উপগ্রহ চিত্রে প্রকাশ্যে ‘ড্রাগনে’র অভিসন্ধি]

সোমবার ধর্মীয় স্বাধীনতা ক্ষুণ্ণ করার অভিযোগে নয়াদিল্লির পাক হাই কমিশনের কাছে তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে ভারত। বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র অনুরাগ শ্রীবাস্তব বলেন,”এই মর্মে ‌পাকিস্তান হাই কমিশনে কড়া প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। লাহোরের নওলাখা বাজারে রয়েছে শহিদি আস্থান গুরুদ্বার। এখানেই শহিদ হয়েছিলেন ভাই তারু সিং জি। কিন্তু তাকে শাহিদগঞ্জ মসজিদের জায়গা বলে দাবি করছে পাকিস্তান। কিছু মানুষ ওই ঐতিহাসিক গুরুদ্বারকে মসজিদে রূপান্তরিত করার চেষ্টা করেছে। ঘটনার দিকে কড়া নজর রাখছে ভারত। আমরা পাকিস্তানকে নিজের সংখ্যালঘু নাগরিকদের অধিকার ও নিরাপত্তা বজায় রাখার আবেদন জানাচ্ছি।”

এদিকে, এই ঘটনায় তীব্র ক্ষোভপ্রকাশ করেছে অকালি দল। পাকিস্তানে (Pakistan) সংখ্যালঘু শিখদের ন্যায়ের দাবি জানিয়েছে রাজনৈতিক দলটি। অকালি দলের মুখপাত্র মনজিন্দর সিং সিরসা টুইট করেন, “শহিদি স্থানটিকে ধ্বংস করে দিতে চাইছে পাকিস্তানের উগ্রপন্থীরা। এই পদক্ষেপ মানবধিকারে পরিপন্থী। কারও অধিকার নেই অন্যের ধর্মীয় আচরণে বাধা দেওয়া। ইমরান খানের কাছে অনুরোধ তিনি বিষয়টি খতিয়ে দেখে মৌলবাদীদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করুন।” লাহোরে গুরুদ্বার ভেঙে মসজিদ তৈরি চেষ্টার বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং। টুইট করে বিষয়টি তুলে ধরে পাকিস্তানে শিখদের সুরক্ষার বিষয়টি নিশ্চিত করার জন্য বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকরের কাছে আবেদন জানিয়েছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, চলতি মাসেই ইস্তানবুলের ষষ্ঠ শতাব্দীর বিখ্যাত স্থাপত্য হেগিয়া সোফিয়া (Hagia Sophia) মিউজিয়ামকে মসজিদে পরিবর্তিত করছে তুরস্ক সরকার। এরদোগান প্রশাসনের এহেন পদক্ষেপে বিশ্বজুড়ে বয়ে গিয়েছে নিন্দার ঝড়। 

[আরও পড়ুন: চিনকে বেকায়দায় ফেলে ইন্দোনেশিয়াকে ব্রহ্মস মিসাইল দেবে ভারত!]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement