BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

নির্জন স্টেশনে দাঁড়িয়ে কিমের বিশেষ ট্রেন! উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রনেতাকে নিয়ে নয়া জল্পনা

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: April 26, 2020 3:16 pm|    Updated: April 26, 2020 3:16 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: উত্তর কোরিয়ার একনায়ক কিম জং উনের প্রয়াণ সংবাদ ছড়িয়ে গিয়েছে সারা বিশ্বে। করোনা আতঙ্কের মাঝে আরও এক খবর ঘিরে তোলপাড় হওয়ার উপক্রম। মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেনি উত্তর কোরিয়া। ফলে জল্পনা আরও বাড়ছে। এসবের মধ্যেই এক উপগ্রহ চিত্র সামনে আসায় বিষয়টি নিয়ে ফের চর্চা তুঙ্গে। ছবিতে দেখা যাচ্ছে, কিম এবং তাঁর পরিবার যে বিশেষ ট্রেনে চলাফেরা করেন, সেই ট্রেনটি দাঁড়িয়ে রয়েছে দেশের পূর্ব উপকূলে লিডারশিপ স্টেশনে। যা থেকে অনুমান করা হচ্ছে, তিনি পিয়ংইয়ংয়ের প্রাসাদ ছেড়ে এই এলাকাতেই আপাতত রয়েছেন।

চলতি মাসের মাঝামাঝি সময় থেকে কিম জং উনের অসুস্থতার খবর ছড়িয়ে পড়েন। বাড়তি ওজন, অত্যধিক ধূমপান-মদ্যপান, সেইসঙ্গে কাজের বিপুল চাপ – সবমিলিয়ে মাত্র ৩৬ বছর বয়সী রাষ্ট্রনেতা ধীরে ধীরে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভরতি হওয়ার পর শুরু হয় চিকিৎসা। অস্ত্রোপচার শেষে শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকে ক্রমশ। কিমের আরোগ্য কামনা করে শুভেচ্ছাবার্তা পাঠান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প থেকে শুরু করে বেশ কয়েকজন রাষ্ট্রপ্রধান। বিপদের সময় তাঁকে সুস্থ করে তুলতে উত্তর কোরিয়ায় চিকিৎসকদল পাঠিয়ে দেয় চিন। দিন দুই আগে আচমকাই কিমের মৃত্যু সংবাদ ছড়িয়ে পড়ে। তবে পিয়ংইয়ং সূত্রে খবর, ওই সংবাদ গুজবমাত্র। প্রেসিডেন্ট কিম সুস্থতার পথে।

[আরও পড়ুন: সেরে উঠলেও দ্বিতীয়বার হানা দিতে পারে করোনা! কী বলছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা?]

এরপর রবিবার প্রকাশ্যে আসে এই ছবি। স্যাটেলাইট ছবিতে দেখা গিয়েছে, উত্তর কোরিয়ার পূ্র্ব প্রান্তে ওনসান নামে এক নির্জন শহরের লিডারশিপ স্টেশনে দাঁড়িয়ে কিমের জন্য বিশেষ ট্রেনটি। একটি রিপোর্ট বলছে, ২১ থেকে ২৩ এপ্রিলের মধ্যে এই ছবিটি তোলা হয়েছে। তবে এই ছবি দেখে কিমের অসুস্থতা সম্পর্কে কোনও ধারণা করা যায় না বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। তবে এ বিষয়ে তাঁরা নিশ্চিত যে কিম এই মুহূর্তে দেশের ওই নির্জন, অভিজাত শহরেই রয়েছেন। সঙ্গে থাকতে পারেন তাঁর পরিবারের কোনও সদস্যও। কারণ, এই বিশেষ ট্রেনটি একমাত্র কিম পরিবারের সদস্যরাই ব্যবহার করেন। দক্ষিণ কোরিয়া অবশ্য জানিয়েছেন, কিমের কিছু হয়নি। করোনা সংক্রমণ থেকে দূরে থাকতে তিনি পিয়ংইয়ং ছেড়ে চলে গিয়েছেন নির্জন শহর ওনসানে।

[আরও পড়ুন: প্রয়াত উত্তর কোরিয়ার একনায়ক কিম, খবর ছড়াতেই চাঞ্চল্য বিশ্বজুড়ে]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement