২৮ আশ্বিন  ১৪২৬  বুধবার ১৬ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পাকিস্তানের সেনা হাসপাতালে ভয়াবহ বিস্ফোরণের জেরে জখম হয়েছে মাসুদ আজহার। টুইটারে এমনই দাবি করেছেন পাকিস্তানের এক মানবাধিকার কর্মী। যদিও বিষয়টি গোপন রাখার জন্য সেনা ওই হাসপাতালে কাউকে ঢুকতে দিচ্ছে না বলেও অভিযোগ করেছেন তিনি।

[আরও পড়ুন- ইথিওপিয়ায় ব্যর্থ সেনা অভ্যুত্থান, দেহরক্ষীর হাতেই নিহত সেনাপ্রধান]

রবিবার রাওয়ালপিণ্ডির সেনা হাসপাতালে বোমা বিস্ফোরণ হয়। এর ফলে হাসপাতালটির ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে বলে জানা যায়। কোয়েটার এক মানবাধিকার কর্মী আহসানউল্লা মিয়াখইল টুইট করেন, সেনা হাসপাতালে বিস্ফোরণ হয়েছে। ঘটনাটির কথা সংবাদমাধ্যমকে জানাতে চাইছে না পাকিস্তান সরকার। খবরটি দেখানোর উপরও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। কারণ, ওই হাসপাতালে কিডনি অসুখের জন্য দীর্ঘদিন ধরে ভরতি রয়েছে জইশ-ই-মহম্মদ প্রধান মাসুদ আজহার। বিস্ফোরণের ফলে আরও ন’জনের সঙ্গে সেও গুরুতর জখম হয়েছে বলেও জানা গিয়েছে। তাই ওই হাসপাতালে কাউকে ঢুকতে দিচ্ছে না সেনা। ভিতরে ভরতি রোগীরা কী অবস্থায় রয়েছে সেই খবরও পাওয়া যাচ্ছে না।

একটি টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে দাবি করা হয়, এই বিস্ফোরণে জখম হয়েছে রাষ্ট্রসংঘের কালো তালিকায় থাকা মাসুদ আজহার। তাই খবরটি চেপে দেওয়া হচ্ছে। আরেকজন টুইট করে, ওই হাসপাতালে হামলা হয়েছে বলেও দাবি করেন।

[আরও পড়ুন- মার্কিন আক্রমণে আগুন জ্বলবে পশ্চিম এশিয়ায়! ট্রাম্পকে পালটা ইরানের]

পুলওয়ামায় হামলার পর থেকেই মাসুদকে নিয়ে চাপে আছে পাকিস্তান। রাষ্ট্রসংঘের আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদীর তালিকায় নাম ঢোকার পর তা আরও বেড়েছে। ভারতের পাশাপাশি বিশ্বের বেশিরভাগ দেশই পাকিস্তানকে সন্ত্রাসবাদের আতুঁড়ঘর বলে চিহ্নিত করেছে। অক্টোবরের মধ্যে জঙ্গিদের মদত দেওয়া বন্ধ না করলে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার হুমকি দিয়েছে এফএটিএ-র মতো আন্তর্জাতিক সংস্থা। তাই মাসুদের মতো জঙ্গিদের দায় আর নিতে চাইছে না তারা। রাওয়ালপিণ্ডির সেনা হাসপাতালে বিস্ফোরণ তার ফলশ্রুতি হতে পারে!  পাকিস্তানের সেনাবাহিনীর হাত এই বিস্ফোরণের পিছনে থাকতে পারে। 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং