BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মাটি খুঁড়তেই বেরল প্রাচীন বুদ্ধমূর্তি, ‘ইসলাম বিরোধী’ বলে ভেঙে টুকরো করল পাকিস্তানিরা

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: July 19, 2020 1:28 pm|    Updated: July 19, 2020 1:28 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বাড়ির ভিত তৈরির জন্য মাটি খুঁড়তে খুঁড়তে এক প্রাচীন বুদ্ধমূর্তি পেয়েছিল নির্মাণ শ্রমিকরা। কিন্তু স্রেফ ইসলাম বিরোধী অজুহাতে সেই প্রাচীন নিদর্শনকে রাগের মাথায় শাবল দিয়ে ভেঙে টুকরো টুকরো করে দিল তারা। ন্যক্কারজনক ঘটনাটি আর কোথাও নয়, পাকিস্তানের পাশতুন অধ্যুষিত খাইবার-পাখতুনখোয়া প্রদেশের মারদান জেলার। ঘটনায় নিন্দার ঝড় উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

একসময় গান্ধার সাম্রাজ্যের অংশ ছিল এই মারদান জেলা। সেখানকার তখত ভাই অঞ্চলে বাড়ি তৈরির কাজ চলছিল। ভিতের জন্য মাটি খুঁড়ছিল শ্রমিকরা। তখনই ওই বুদ্ধমূর্তি খুঁজে পায় তারা। সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, হাতুড়ি-শাবল দিয়ে সেই মূর্তি রাগে ভেঙে ফেলছে শ্রমিকরা। কারণ, সেটি ইসলাম বিরোধী তাই। নেটিজেনরা পাকিস্তানের পর্যটন মন্ত্রককে কটাক্ষ করেছে এই ঘটনায়। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রক জানিয়েছে, তারা বিষয়টি খতিয়ে দেখছে। তারপর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

[আরও পড়ুন: ইরানে করোনা সংক্রমিত আড়াই কোটি মানুষ! প্রেসিডেন্ট রুহানির দাবি ঘিরে শোরগোল]

খাইবার-পাখতুনখোয়ার পুরাতত্ত্ব বিভাগের অধিকর্তা আবদুল সামাদ জানিয়েছেন, যে এলাকায় হয়েছে এই ঘটনা সেখানে আধিকারিকরা গিয়ে কথা বলছে স্থানীয়দের সঙ্গে। যারা এই অপকর্মের সঙ্গে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। এই অঞ্চলে ১৮৩৬ সালে ইস্ট-ইন্ডিয়া কোম্পানির তত্ত্বাবধানে প্রথম খনন করা হয়। তখন পুরাতাত্ত্বিকরা বহু প্রাচীন পোড়ামাটির মূর্তি উদ্ধার করেছিলেন। তা থেকেই গান্ধার সাম্রাজ্যের কথা অনেকটা জানা যায়।

[আরও পড়ুন: ফের বিপাকে ইসলামাবাদ, আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদী ঘোষিত পাকিস্তানের জঙ্গিগোষ্ঠীর প্রধান]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement