৩ মাঘ  ১৪২৭  রবিবার ১৭ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

করোনাকে ‘গুজব’ ভেবে আক্রান্তদের সঙ্গে পার্টি, কোভিড সংক্রমণেই মৃত্যু যুবকের

Published by: Paramita Paul |    Posted: July 13, 2020 10:54 am|    Updated: July 13, 2020 10:54 am

An Images

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘করোনার কোনও অস্তিত্ব নেই। এটা স্রেফ গুজব’। এমনই ঠাট্টার ছলে মহামারীকে পাত্তা দিচ্ছেন না অনেকেই। আবার অনেকেই ভাবছেন, ‘আরে এই সংক্রমণে আমার কিছুই হবে না’। এমন ভাবনাই কাল হল আমেরিকার (America) টেক্সাস নিবাসী এক যুবকের। সেই কোভিড-১৯ (Covid-19) -এ আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হল তাঁর। মৃত্যু আগে নার্সের কাছে তাঁর স্বীকারোক্তি “আমি ভুল করেছিলাম”।

বিশ্বজুড়ে ত্রাস সৃষ্টি করেছেন করোনা ভাইরাস (Corona Virus)। সংক্রমিত দেড় কোটিরও বেশি মানুষ। মৃত্যুও হয়েছে কয়েক লক্ষ মানুষের। এর মধ্যে আমেরিকাতেই প্রায় দেড় লক্ষ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। তারপরেও কিছু মানুষ করোনাকে পাত্তা দিতে নারাজ। তাঁদের দাবি, “আরে এটা তো গুজব! বয়স্ক মানুষেরা এই রোগে আক্রান্ত হন, আমাদের মতো অল্পবয়সীদের কিছুই হবে না।” আর এই মনোভাবই কাল হয়ে দাঁড়াচ্ছে তাঁদের জন্য। যেমন টেক্সাস নিবাসী বছর তিরিশের এই যুবক।

[আরও পড়ুন : অবশেষে আশার আলো! ‘করোনা ভ্যাকসিনে’র ট্রায়াল সফল, দাবি রাশিয়ার]

চিকিৎসকরা বলে থাকেন, যুবক-যবতীদের উপর করোনা সংক্রমণের প্রভাব তুলনামূলক কম। সেই কথা মেনেই এক করোনা আক্রান্ত রোগী টেক্সাসে মহাভোজের আয়োজন করেছিলেন। নাম দিয়েছিলেন ‘COVID-19 party’। যাঁরা সুস্থ তাঁরা করোনা রোগীর সংস্পর্শে এসে আক্রান্ত হন কিনা, সেটাই ছিল চ্যালেঞ্জ। বছর তিরিশের ওই যুবকের দাবি ছিল, তাঁর বয়স অল্প তাই করোনা তাঁর টিকিও ছুঁতে পারবে না। কিন্তু এই পার্টিতে যাওয়ার কয়েকদিনের মধ্যে করোনা আক্রান্ত হন। শেষপর্যন্ত হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হয়।

[আরও পড়ুন : জুতো থেকেও ছড়াতে পারে করোনা? কী বলছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানুন]

সান আন্তেনিওর মেথোডিস্ট হাসপাতালে ভরতি ছিলেন ওই যুবক। সেই হাসপাতালের মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক জেন অ্যাপেলবাই বলেন, “অনেক সময় তরুণ প্রজন্ম বুঝতে পারে না তাঁরা কতটা অসুস্থ। কিন্তু শারীরিক পরীক্ষা করলে দেখা যায় তিনি কতটা অসুস্থ রয়েছেন। এক্ষেত্রেও তাই হল।” ওই যুবককে দেখভাল করছিলেন যে নার্স, তিনি জানান শেষবেলায় ওই যুবক স্বীকার করেছিলেন, “আমার মনে হয়, আমি ভুল করেছি।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement