৩০ ভাদ্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সুকুমার সরকার, ঢাকা: বাংলাদেশের পদ্মানদীর উপর সাড়ে ছয় কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলেছে। এই পদ্মাসেতু নির্মাণ হলে শুধু দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের বরিশাল, খুলনা, যশোর, ফরিদপুর অঞ্চলের মানুষই নয়- উপকৃত হবেন দুই বাংলার মানুষও। অতি সহজেই মানুষ কলকাতা-সহ ভারতের যে কোনও অঞ্চলে যাতায়াত করতে পারবেন। ঢাকার অদূরে পাটুরিয়ায় ফেরি পারের জন্য ৮/১০ ঘণ্টা অপচয় হবে না।

সেতুর নির্মাণ কাজ খুব দ্রুত গতিতে এগোচ্ছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজ চলছে। আশা করা হচ্ছে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজ সমাপ্ত হবে। শনিবার ১৪ ও ১৫ নম্বর পিয়ারের উপর ১৩তম স্প্যান বসানোর কাজ সম্পন্ন হয়েছে। এর ফলে এখন পদ্মা সেতুর ১ হাজার ৯৫০ মিটার অর্থাৎ দুই কিলোমিটার সেতু দৃশ্যমান হয়েছে। শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে নদীর মাঝামাঝি স্থানে স্প্যানটি বসানো হয়। এর আগে শুক্রবার ভাসমান ক্রেনে করে স্প্যানটি মাওয়ার কুমারভোগ কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ড থেকে নির্দিষ্ট পিয়ারের দিকে নিয়ে যাওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়।

[ আরও পড়ুন: বিদেশে পালানোর সময় ঢাকা এয়ারপোর্টে গ্রেপ্তার দুই রোহিঙ্গা মহিলা, চট্টগ্রামে ধৃত ৫০ ]

পদ্মা সেতুর প্রকৌশল সূত্রে জানা যায়, পদ্মা সেতুতে ২৯৪ পাইলের মধ্যে ২৬২টি পাইল ড্রাইভ সম্পন্ন হয়েছে। বাকি ৩২টি পাইল ড্রাইভের কাজ চলছে। ৪২টি পিলারের মধ্যে কাজ শেষ হয়েছে ২৫টি পিলারের। বাকি ১৭টি পিলারের কাজ চলছে। ৪১টি স্প্যানের মধ্যে বসানো হয়েছে ১৩টি স্প্যান। আরও ২৮টি স্প্যান বসবে। ইংরেজি ‘ভি’ উলটো করে দেখলে যেমন দেখায় ঠিক তেমন আকৃতিতেই নির্মাণ করা হচ্ছে দেশের সর্ববৃহৎ পদ্মা সেতুর পিলার। মাদারিপুরের জাজিরা শিবচর নাওডোবা থেকে শুরু করে নদীর ভিতরে সারিবদ্ধভাবে বিক্রমপুরের মাওয়ার দিকে মোট ৮টি পিলারের কাজ চলছে।

পুরো প্রকল্পের জন্য এরকম পিলার তৈরি করা হবে মোট ৪২টি। তিন মিটার পরিধির একেকটি পাইল ১২২ মিটার পদ্মার তলদেশে গিয়ে থামছে। ছয়টি পাইল ঘিরে দাঁড়িয়ে যাবে একটি পিলার। যে পিলারের উপর স্প্যান বসালেই হয়ে যাবে সেতু। এখন পিলার গড়ে তোলার জন্য চলছে মাটি উত্তোলনের কাজ। সেতু প্রকল্পে নিয়োজিত সাব-অ্যাসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার হুমায়ুন কবির বলেন, অনেক চড়াই-উৎরাইয়ের পর দ্রুত গতিতেই এগিয়ে যাচ্ছে কোটি মানুষের স্বপ্নের পদ্মা সেতুর কাজ।

[ আরও পড়ুন: মোদিকে অভিনন্দন বার্তা হাসিনার, অমীমাংসিত বিষয়ে সুরাহার আশা ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং