২৮ আশ্বিন  ১৪২৬  বুধবার ১৬ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

চন্দ্রশেখর চট্টোপাধ্যায়, আসানসোল: জাতীয় সংগীতের সুর বাজার সময় না দাঁড়িয়ে, চেয়ারে বসেছিলেন এক পুলিশ অফিসার। এই ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হতেই বিতর্ক দেখা দিয়েছে আসানসোলে। ওই পুলিশ আধিকারিক হলেন আসানসোল-দুর্গাপুর পুলিশের (ডিডি-২) ট্রাফিক ২-এর এসিপি রাশিদ আনোয়ার। ঘটনাটি ঘটেছে গত ১৫ জুন, শনিবার। মনে করা হচ্ছে, আসানসোলের জেলা আদালতের নতুন ভবনের উদ্বোধনের দিন ওই ভিডিওটি তোলা হয়েছিল।

[আরও পড়ুন- জয়েন্টে চমক দুর্গাপুরের, মেধাতালিকায় একই জেলার ৩ পড়ুয়া]

বিতর্কিত ওই ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, ব্যান্ডে জাতীয় সংগীতের সুর বাজছে। সবাই দাঁড়িয়ে আছেন। কিন্তু, ওই আধিকারিক চেয়ারে বসে মোবাইল ফোনে কথা বলেই চলেছেন। কিছুক্ষণ পরেই অবশ্য ফোন কেটে উঠে দাঁড়ান তিনি। ভিডিওটি যে সত্যি তা নিজেই স্বীকার করেছেন ওই পুলিশ আধিকারিক। তবে এটিকে আকস্মিক দুর্ঘটনা বলে দাবি করেছেন। জানা গিয়েছে, এই ঘটনার চারদিন বাদে গত ১৯ জুন ভিডিওটি ভাইরাল হয়। এরপরই বিষয়টিকে নিয়ে বিতর্ক দেখা দিয়েছে। তীব্র নিন্দা করেছেন আসানসোল আদালতের আইনজীবীরাও।

আসানসোল বার অ্যাসোসিয়েশনের সম্পাদক বাণী মণ্ডল বলেন, “ভিডিওটিতে যা দেখেছি তা অনুচিত। দেশের প্রতি অপমান। উনি একজন পদস্থ পুলিশ অফিসার। আইন সম্পর্কে আরও সতর্ক থাকা উচিত ছিল ওনার।” যদিও রাশিদ আনোয়ার বলেন, “জাতীয় সংগীত বেজে ওঠার আগে আমার জরুরি ফোন চলে এসেছিল। সেসময় আচমকা জাতীয় সংগীতের সুর বেজে ওঠে। আমি কিংকর্তব্যবিমূঢ় হয়ে যাই। তারপরই অবশ্য ফোন কেটে উঠে দাঁড়াই।”

[আরও পড়ুন- সন্তানদের অবহেলায় গৃহবন্দি, গরমে বদ্ধ ঘরেই মৃত্যু বৃদ্ধের]

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে,  ঘটনার সময় মঞ্চে ছিলেন কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি টিবি রাধাকৃষ্ণন, বিচারপতি দেবাংশু বসাক, পশ্চিম বর্ধমান জেলা ও দায়রা জজ আদালতের জোনাল বিচারক সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায়, জেলা বিচারক অজয় দাস ও আইনমন্ত্রী মলয় ঘটক। আর মঞ্চের নিচে ছিলেন পুলিশ কমিশনার, জেলাশাসক ও আইনজীবীরা।

দেখুন ভিডিও:

(ভিডিওটির সত্যতা যাচাই করেনি সংবাদ প্রতিদিন।)

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং