২২  শ্রাবণ  ১৪২৯  সোমবার ৮ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

Babita Sarkar: দীর্ঘ লড়াইয়ে জয়, মন্ত্রীকন্যা অঙ্কিতার শূন্যপদে শিক্ষিকা হিসাবে যোগ ববিতার

Published by: Sayani Sen |    Posted: July 4, 2022 1:34 pm|    Updated: July 4, 2022 2:08 pm

Babita Sarkar joins as school teacher after a long battle । Sangbad Pratidin

বিক্রম রায়, কোচবিহার: দীর্ঘ লড়াইয়ে জয়। অবশেষে মেখলিগঞ্জের ইন্দিরা গার্লস হাইস্কুলে রাষ্ট্রবিজ্ঞানের শিক্ষিকা হিসাবে যোগ দিলেন ববিতা সরকার (Babita Sarkar)। ওই স্কুলেই চাকরি করতেন শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পরেশ অধিকারীর মেয়ে অঙ্কিতা। এসএসসি মামলায় কলকাতা হাই কোর্টের নির্দেশে আপাতত চাকরি থেকে বরখাস্ত মন্ত্রীকন্যা। সেই শূন্যপদেই যোগ দিয়েছেন ববিতা। বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়কে ধন্যবাদ জানান তিনি।

Babita Sarkar

ববিতা স্কুলে যোগ দেওয়ার পর তিনি বলেন, “অবশেষে দীর্ঘ ৪ বছরের লড়াইয়ে জয় পেলাম। ছোট থেকে নিজেকে শিক্ষিকা হিসাবে দেখার ইচ্ছা ছিল। সেই দিনটা জীবনে এসেছে। খুব খুশি হয়েছি।” শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পরেশ অধিকারীর মেয়ে অঙ্কিতাকে (Ankita Adhikari) নিয়ে অবশ্য কোনও কথাই বলতে চাননি তিনি। কলকাতা হাই কোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়কে হাতজোড় করে ধন্যবাদ জানিয়ে ববিতা বলেন, “উনি আমাদের মতো বঞ্চিত চাকরিপ্রার্থীদের কাছে ভগবান। ওনার বিচক্ষণতার জন্য সমস্ত দুর্নীতি সামনে এসেছে। উনি আমাদের জন্য যা করেছেন, তার জন্য কৃতজ্ঞ। জীবনের শেষদিন পর্যন্ত কৃতজ্ঞ থাকব। আইনজীবীর প্রতিও আমি সমান কৃতজ্ঞ।”

Babita-Sarkar

[আরও পড়ুন: বিনোদন জগতে নক্ষত্রপতন, প্রয়াত কিংবদন্তি পরিচালক তরুণ মজুমদার]

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ৪ ডিসেম্বর এসএসসি (SSC) পরীক্ষায় বসেছিলেন ববিতা সরকার। ২০১৭ সালের ২৭ নভেম্বর প্রকাশিত হয়েছিল মেধাতালিকা। সেখানে ওয়েটিং লিস্টে নাম ছিল তাঁর। সাধারণত প্যানেল লিস্টে থাকা কর্মপ্রার্থীদের চাকরি হওয়ার পর ওয়েটিং লিস্টে থাকা চাকরি প্রার্থীদের পালা আসে। তাই আশায় বুক বেঁধে বসেছিলেন শিলিগুড়ির কোর্ট মোড়ের বাসিন্দা ববিতা সরকার। কিন্তু সেই চাকরি আর জোটেনি। তারই মধ্যে তালিকা প্রকাশের দাবিতে আন্দোলনে নামেন কর্মপ্রার্থীরা। দেখা যায়, ববিতা সরকারের নাম রয়েছে ২০ নম্বরে। কিন্তু দ্বিতীয় কাউন্সেলিংয়ের পর তিনি জানতে পারেন তাঁর নাম চলে গিয়েছে ২১ নম্বরে। অদৃশ্য হাতের ম্যাজিকে এক নম্বরে পৌঁছে গিয়েছেন শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পরেশ অধিকারীর কন্যা অঙ্কিতা।

Paresh Adhikari's daughter Ankita 'cracks' College Services Exam

এরপরই ন্যায় বিচারের দাবিতে কলকাতা হাই কোর্টের (Calcutta High Court) দ্বারস্থ হন ববিতা সরকার। অঙ্কিতার চাকরি বাতিলের নির্দেশ দেয় হাই কোর্ট। ৪৩ মাস স্কুলে চাকরি করাকালীন প্রাপ্ত বেতনও ফেরার দেওয়ার কথা বলা হয়। সেই মতো প্রথম কিস্তিতে টাকা ফিরিয়ে দিয়েছেন মন্ত্রীকন্যা। হাই কোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী, অঙ্কিতার শূন্যপদে চাকরি পেলেন ববিতা। তাঁর প্রাপ্ত বেতনের টাকাও পেয়েছেন লড়াকু ববিতা। ওই টাকা সমাজকল্যাণমূলক কাজে ব্যয় করতে চান তিনি।

দেখুন ভিডিও:

[আরও পড়ুন: ‘১০ বছর রাজত্ব করতে হলে দু’বছর উপোস করুন’, তৃণমূল বুথ সভাপতিদের কড়া বার্তা চন্দ্রনাথ সিনহার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে