BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বাবুলের ‘সেন-সেশনাল’ টুইটে বিতর্ক, পালটা দিলেন তৃণমূল নেতা

Published by: Sayani Sen |    Posted: March 13, 2019 8:42 pm|    Updated: April 22, 2019 6:08 pm

An Images

চন্দ্রশেখর চট্টোপাধ্যায়, আসানসোল: ‘সেন’ নিয়ে শ্যেনদৃষ্টি টুইটারে। আসানসোলের তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী মুনমুন সেনের নাম ঘোষণা হতেই বাবুল টুইট করেন, মমতাদি তাঁর বিরুদ্ধে ‘সেন-সেশনাল’ (উত্তেজনাময়) প্রার্থী নির্বাচন করেন। ২০১৪ সালে দোলা সেন, ২০১৯ সালে মুনমুন সেন। বাবুলের করা টুইটে বাবুলেরই স্টাইলে জবাব দিলেন মন্ত্রী মলয় ঘটকের ভাই তথা পুরনিগমের মেয়র পারিষদ অভিজিত ঘটক। তিনি বাবুলের টুইটে লেখেন তৈরি থাকুন আপনাকে এবার ‘সেন’-ডফ (সেন্ডঅফ) করা হবে। মানে বিদায় জানানো হবে। এখানে তিনি বাবুলের মতোই সেন শব্দটিকে ইংরাজি ক্যাপিটাল ওয়ার্ডে লেখেন। এরপরেই দেখা যায় অভিজিৎ ঘটককে বাবুল তাঁর টুইট হ্যান্ডেল থেকে ব্লক করে দেন। এই ঘটনাটিকে স্ক্রিনশট দিয়ে অভিজিৎ ঘটক ফেসবুকে ও টুইটারে জানান ফলোয়ার্সদের।

[বালুরঘাটে প্রার্থী বদলের দাবি তৃণমূলের দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা সভাপতির]

অভিজিৎবাবু বলেন, বাবুল সুপ্রিয় এতটাই অসহিষ্ণু সাংসদ নিজের সমালোচনা সহ্য করতে পারেন না। তিনি জবাব দিতে না পেরে ব্লক করে দিয়েছেন। বাবুলের বিরুদ্ধে একই অভিযোগ করেছেন গতবারের বাবুলের প্রতিদ্বন্দ্বী কংগ্রেস প্রার্থী ইন্দ্রানী ভট্টাচার্য। তিনি বলেন হিন্দুস্থান কেবলস ও বার্ন স্ট্যান্ডার্ড বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর কেন্দ্রীয় ভারী শিল্প মন্ত্রকের মন্ত্রী তথা সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়কে ট্যাগ করে প্রশ্ন করেছিলেন। সদুত্তর দিতে না পেরে বাবুল তাঁকেও ব্লক করে দেন। এখানেই শেষ নয়, গতবারের বাবুলের প্রতিদ্বন্দ্বী সিপিএম প্রার্থী বংশগোপাল চৌধুরিও প্রশ্ন তুলেছেন, গত পাঁচ বছরে বাবুল কী করেছেন আসানসোলের জন্য। তার জবাব দিন। যদিও বংশগোপাল চৌধুরির করা এই প্রশ্নের জবাব দেননি বাবুল। তবে দেওয়ালের পাশপাশি সোশ্যাল মিডিয়ার ওয়ালে লড়াই শুরু হয়ে গেল বুধবার থেকে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement