২৩  শ্রাবণ  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ১১ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

Coronavirus Update: সামান্য নিম্নমুখী রাজ্যের কোভিড গ্রাফ, গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু তিনজনের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: July 2, 2022 4:29 pm|    Updated: July 2, 2022 9:07 pm

Coronavirus in West Bengal: 1499 new cases in last 24 hours, 3 death | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজ্যে টানা ঊর্ধ্বমুখী করোনা (Coronavirus) সংক্রমণের মাঝে সপ্তাহান্তে সামান্য স্বস্তি। খানিকটা কমল দৈনিক সংক্রমণ। রাজ্য স্বাস্থ্যদপ্তরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে কোভিডে (COVID-19) আক্রান্ত হয়েছেন ১৪৯৯। শুক্রবার ১৭০০-র বেশি ছিল সংক্রমিতের সংখ্যা। একদিনে মৃত্যু হয়েছে তিনজনের। এর মধ্যে একজন উত্তরবঙ্গের বাসিন্দা। পরিসংখ্যান বলছে, চলতি বছর উত্তরবঙ্গে এই প্রথম করোনায় মৃত্যু। আলিপুরদুয়ার ও কালিম্পংয়ে অবশ্য এদিন আক্রান্তের সংখ্যা শূন্য। রাজ্যে পজিটিভিটি রেট প্রায় ১৫ শতাংশ। 

রাজ্য স্বাস্থ্যদপ্তরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, করোনায় দৈনিক সংক্রমণ সবচেয়ে বেশি কলকাতায় (Kolkata)। একদিনে এখানে ৫৫০ জন নতুন করে কোভিড আক্রান্ত হয়েছেন। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে উত্তর ২৪ পরগনা। এখানে কোভিড সংক্রমিতের সংখ্যা ৪২৯। সবচেয়ে কম সংক্রমণ পুরুলিয়ায়। একদিনে মাত্র ১ জনের শরীরে নতুন করে করোনা ভাইরাসের হদিশ মিলেছে। তবে বাড়ছে অ্যাকটিভ কেসের সংখ্যা। এই মুহূর্তে তা ৯২৯০। 

 

শনিবার করোনায় সংক্রমিত হয়ে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে উত্তরবঙ্গ (North Bemgal) মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে। হাসপাতাল সূত্রে খবর, ২৮ জুন করোনা আক্রান্ত  ওই রোগী ভরতি হয়েছিলেন। তাঁর টিকা (Corona vaccine) নেওয়া ছিল। শনিবার সকাল ৭টা নাগাদ মৃত্যু হয় তাঁর। তার শ্বাসকষ্ট ছিল। মেডিক্যাল কলেজের প্রিন্সিপাল ইন্দ্রজিৎ সাহা বলেন,”সংক্রমিত অবস্থায় খাবার আটকে শ্বাসকষ্ট দেখা দেয়।  তারপর উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজে ভরতি করা হয় ২৮ জুন। চেস্ট ইনফেকশন ধরা পড়ে। শুক্রবার থেকে অবস্থার অবনতি ঘটেছিল তাঁর।” চলতি বছর উত্তরবঙ্গে প্রথম করোনা রোগীর মৃত্যু বলে জানাচ্ছেন চিকিৎসকরা। যদিও 

[আরও পড়ুন: এখনও কার্যকর হয়নি কেন্দ্রের নয়া শ্রম আইন, কোন ফাঁসে আটকে নিয়মগুলি?]

কোভিডের এই বাড়বাড়ন্তেও অবশ্য জনসচেতনতার অভাব দেখা যাচ্ছে। মাস্ক নেই সকলের মুখে, শারীরিক দূরত্ববিধিও মানছেন না অনেকেই। আর তাতেই সংক্রমণ বেশি ছড়িয়ে পড়ছে বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল। কাজেই, সতর্কতা প্রচার কিংবা বিধিনিষেধ আরোপ, যেভাবেই হোক জনসচেতনতা বাড়ানো প্রয়োজন। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে