৭ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২১ মে ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo নির্বাচন ‘১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও #IPL12 ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
নির্বাচন ‘১৯

৭ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২১ মে ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সংবিধানের ৩২৪ ধারা প্রয়োগ করে প্রচারের সময়সীমা কমানো হয়েছে। নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে সুর চড়ালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার দক্ষিণ ২৪ পরগনার মন্দিরবাজারের জনসভায় তিনি বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন বিজেপির কাছে বিক্রি হয়ে গিয়েছে। বিজেপির স্বার্থে প্রচারের দিন কমিয়ে দিয়েছে। এর আগে এত গরমেও কখনও ভোট হয়নি।’ এদিন কলকাতার বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙা নিয়েও বিজেপিকে একহাত নেন মুখ্যমন্ত্রী।

[আরও পড়ুন: কমেছে প্রচারের সময়, শেষ মুহূর্তে রোড শোয়ে নেপালদেব-ইয়েচুরি]

মঙ্গলবার বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহের রোড-শোকে কেন্দ্র করে রণক্ষেত্রের চেহারা নিয়েছিল কলেজ স্ট্রিট চত্বর। বিদ্যাসাগর কলেজের সামনে বিজেপি-তৃণমূল কর্মীদের মধ্যে তুমুল সংঘর্ষ হয়। এমনকী, কলেজের ভিতরে ঢুকে বিদ্যাসাগরের মূর্তিটি ভেঙে দেওয়া হয়। তৃণমূল কংগ্রেসের অভিযোগ, বিজেপি সমর্থকরাই বিদ্যাসাগর কলেজে ঢুকে ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভেঙেছে। তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে পালটা অভিযোগের আঙুল তুলেছে বিজেপিও। এমনকী, বিদ্যাসাগরের মূর্তি তৈরি করে দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এই রাজনৈতিক চাপানউতোরের মাঝেই নজিরবিহীন পদক্ষেপ করেছে নির্বাচন কমিশন। সংবিধানের ৩২৪ ধারা প্রয়োগ করে এ রাজ্যে সপ্তম দফা ভোটের প্রচারের সময়সীমা কমিয়ে দিয়েছে কমিশন। কমিশনের স্পষ্ট নির্দেশ, বৃহস্পতিবার রাত ১০টা পর আর কোনও রাজনৈতিক দলই প্রচার করতে পারবে না।

মথুরাপুর লোকসভা কেন্দ্রের মন্দিরবাজারের মুখ্যমন্ত্রীর সভা করার কথা ছিল শুক্রবার। পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে বৃহস্পতিবারই সভা করতে হল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘ডায়মন্ড হারবারে মোদির সভা পর আর কোনও রাজনৈতিক দল প্রচার করতে পারবে না। বিজেপির স্বার্থে প্রচারের সময়সীমা কমিয়েছে কমিশন। কিন্তু চক্রান্ত করে তাঁকে আটকানো যাবে না।’ মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ‘অমিত শাহের নেতৃত্বেই বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভেঙেছে বিজেপির গুন্ডারা। মূর্তি ভাঙা বিজেপির অভ্যাস। মীরাটে ওঁরা আম্বেদকরের মূর্তি ভেঙেছিল।’ গেরুয়া শিবিরকে মমতার হুঁশিয়ারি, ‘বাংলার মনীষীদের গায়ে হাত দিলে কেউ ছেড়ে কথা বলবে না। এর বদলা নিতে হবে। মূর্তি বানানোর টাকা বাংলার আছে। মোদির দয়ায় বাংলা চলে না। কিন্তু দুশোর বছরের হেরিটেজ ফিরিয়ে দিতে পারবে?’ এলাকায় বিজেপির বিরুদ্ধে স্থানীয় মহিলাদের একজোট হওয়ার কথা জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

[আরও পড়ুন: মজিদ মাস্টারের উঠোনে মমতার ‘সবুজসাথী’]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং