১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শনিবার ২৮ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

মুখ্যমন্ত্রীর নাম ভাঙিয়ে সভাধিপতিকে গ্রেপ্তারির হুমকি, কাঠগড়ায় পুরুলিয়ার প্রাক্তন জেলাশাসক

Published by: Tanujit Das |    Posted: July 6, 2019 9:38 pm|    Updated: July 6, 2019 9:38 pm

'Ex-DM is threating me', Purulia's Jela Savadhipati claims

সুমিত বিশ্বাস, পুরুলিয়া: ‘‘মুখ্যমন্ত্রীর নাম করে আমাকে গ্রেপ্তারির হুমকি দিচ্ছেন প্রাক্তন জেলাশাসক অলকেশপ্রসাদ রায়৷’’ শনিবার দুপুরে পুরুলিয়া জেলা পরিষদের কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করে এমনই অভিযোগ করলেন জেলার সভাধিপতি সুজয় বন্দ্যোপাধ্যায়। 

[ আরও পড়ুন: গাফিলতিতে শিশুমৃত্যুর অভিযোগ, সোনারপুরে নার্সিংহোমে ভাঙচুর-ধুন্ধুমার ]

শনিবার সুজয়বাবু অভিযোগ করেন, হোয়াটস অ্যাপে মেসেজ পাঠিয়ে তাঁকে গ্রেপ্তারির হুমকি দিচ্ছেন রাজ্যের পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন বিভাগের কমিশনার অলকেশপ্রসাদ রায়৷ তাঁকে কুরুচিকর মেসেজ পাঠানো হচ্ছে৷ এদিনের সাংবাদিক সম্মেলনে হোয়াটস অ্যাপের স্ক্রিন শট তুলে ধরেন সভাধিপতি। এদিন সুজয় বন্দ্যোপাধ্যায় আরও বলেন, “মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম করে পুরুলিয়ার প্রাক্তন জেলাশাসক অলকেশপ্রসাদ রায় আমাকে ‘গ্রেপ্তার’ করার হুমকি বার্তা পাঠিয়েছেন হোয়াটস অ্যাপে৷ বলছেন, আমার বিরুদ্ধে সিআইডি তদন্ত করবে। টেন্ডার নিয়ে নানা প্রশ্ন তুলেছেন। বলেছেন, আমি নাকি কাজের বিনিময়ে কাটমানি নিয়ে থাকি। প্রাক্তন জেলাশাসকের এই অভিযোগ যে সম্পূর্ণ মিথ্যে, বিষয়টি আমি তৃণমূল নেত্রীকে জানিয়েছি। আমি নিজেই দলনেত্রীকে বলেছি, আমার বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ উঠলে, আপনি তদন্ত করুন। কিন্তু একজন প্রাক্তন জেলাশাসক যেভাবে আপনার নাম করে হুমকি দিচ্ছেন, তা দলের কর্মী হয়ে মেনে নিতে পারছি না। আপনি যেদিন বলবেন আমি সভাধিপতির পদ থেকে ইস্তফা দিয়ে দেব।”

[ আরও পড়ুন: দামি জুতোর বদলে ছেঁড়া এক পাটি! অনলাইন শপিংয়ে প্রতারণা শিকার গ্রাহক ]

জানা গিয়েছে, এই ঘটনাকে ঘিরে তোলপাড় পড়ে গিয়েছে পুরুলিয়া জেলা পরিষদে। এই বিষয়ে প্রতিক্রিয়ার জন্য প্রাক্তন জেলাশাসক অলকেশপ্রসাদ রায়ের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও, তাঁকে পাওয়া যায়নি। এসএমএস করা হলেও, তিনি কোনও উত্তর দেননি।পুরুলিয়া জেলা প্রশাসন সূত্রে খবর, ২০১৮এ পঞ্চায়েত ভোটের পর সেপ্টেম্বর মাসে জেলা পরিষদ গঠনের কিছুদিন পর থেকেই, জেলার উন্নয়নমূলক কাজের টেন্ডার নিয়ে সংঘাতে জড়িয়ে পড়েন সভাধিপতি ও প্রাক্তন জেলাশাসক। গত ফেব্রুয়ারি মাসে জেলাশাসকের বদলির পরেও সেই কাজিয়া যে এখনও বজায় রয়েছে, তা বোঝা গেল এদিনের সাংবাদিকের সম্মেলনে৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে