৮ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৬  বুধবার ২২ মে ২০১৯ 

Menu Logo নির্বাচন ‘১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

রাজা দাস, বালুরঘাট: তীব্র দাবদাহ থেকে বাঁচতে বৃক্ষরোপনের উদ্যোগ নিল বনদপ্তর৷ দক্ষিণ দিনাজপুরে জেলায় বনাঞ্চল কম থাকায় সেখানকার বিভিন্ন জায়গায় প্রায় ৮০ হেক্টর জমিতে গাছ লাগানো হবে বনদপ্তরের তরফে। ফাঁকা রাস্তাঘাট থেকে শুরু করে মাঠ-ময়দানের বিশেষ জায়গাগুলিকে চিহ্নিত করা হচ্ছে। সবুজায়নের জন্য সামনে বর্ষার মরশুমকে কাজে লাগানো হবে বলে সূত্রের খবর৷ 

[আরও পড়ুন: শ্বশুরবাড়ি থেকে ফেরার পথে নিখোঁজ যুবক, পরেরদিন দেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য]

জানা গেছে, রাস্তাঘাট নির্মাণ, বহুতল তৈরি কিংবা নগরায়নের জন্য নানা দিক বিস্তারের প্রয়োজনের দিনদিন বাড়ছে বৃক্ষ নিধন। স্বাভাবিকভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে তাপমাত্রা। দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় সামান্য কিছু এলাকায় রয়েছে বনাঞ্চল। এখানে বিক্ষিপ্তভাবে প্রায় ১৫ শতাংশ এলাকা সবুজায়নের মধ্যে রয়েছে। চলতি মরসুমে এই জেলায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছুঁয়েছে প্রায় ৪২ ডিগ্রি। এতেই মানুষের হাসফাঁস দশা৷ সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে গাছ লাগানোর  প্রয়োজনীয়তা নিয়ে সরব হয়ে ওঠেন নেটিজেনরা। এরপরই  এখানে শুরু হয়েছে গাছ-যোদ্ধা গ্রুপ তৈরি। পরিবেশপ্রেমীরা আরও বেশি করে গাছ লাগানোর দাবিতে সরব হয়েছেন। জেলার বিভিন্ন এলাকায় গাছ লাগানোর লক্ষ্য নিয়েছে এই গোষ্ঠী। সদস্য ও পরিচিতরা যাতে নিজেদের জন্মদিনে একটি করে গাছ লাগান, সেই আবেদন রাখা হয়েছে। এদিকে এই দাবদাহের দিকে লক্ষ্য রেখে বনদপ্তর চলতি বর্ষার মরশুমে জেলায় ৮০ হেক্টর জমিতে গাছ পোঁতার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

[আরও পড়ুন:পালটেছে কুখ্যাত মগরাহাট, অন্ধকারের পথ ছেড়ে ডাকাতরা এখন শ্রমজীবী]

বালুরঘাট বন বিভাগের রেঞ্জার আবদুর রেজ্জাক বলেন, চলতি মরশুমে বনদপ্তরের তরফ থেকেও প্রচুর গাছ লাগানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। জেলার ৮০ হেক্টর জমিতে গাছ লাগাবেন তারা। প্রতি হেক্টর জমিতে প্রায় ৫০০টি করে গাছ লাগানো হবে। ফাঁকা জায়গা, রাস্তার ধার, নদীর ধার-সহ বিভিন্ন জায়গায়  নতুন চারা লাগানো হবে। এছাড়া গাছ বাঁচানোর দিকে আরও বেশি নজর দেওয়া হবে৷ দক্ষিণ দিনাজপুরের মতো রাজ্যজুড়ে এধরনের উদ্যোগ নেওয়া হলে, আদতে পরিবেশ, মানবসমাজেরই উপকার হবে৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং