৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বুধবার ২০ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সুমিত বিশ্বাস, পুরুলিয়া: এটিএমে কুড়িয়ে পাওয়া টাকা থানায় ফেরত দিয়ে সততার পরিচয় দিলেন দুই সিভিক ভলান্টিয়ার। উৎসবের মরশুমে পুরুলিয়া মফঃস্বল থানার দুই সিভিক ভলান্টিয়ার অমিত রাজোয়াড় ও সন্তোষ মাহাতো নিজেদের প্রয়োজনে এটিএমে টাকা তুলতে গিয়ে আট হাজার টাকা পড়ে থাকতে দেখেন। তারপরেই ওই টাকা সঙ্গে সঙ্গে থানায় জমা দেন। রবিবার লক্ষ্মীপুজোর দিন পুলিশের সিভিক স্বেচ্ছাসেবকের এই ঘটনায় তাদের তারিফ করেছে পুরুলিয়া জেলা পুলিশ।

সোমবার ওই আট হাজার টাকা সংশ্লিষ্ট ব্যাংকে জমা করে পুরুলিয়া মফঃস্বল থানা। পুরুলিয়ার পুলিশ সুপার আকাশ মাঘারিয়া বলেন, “ওই দুই সিভিক ভলান্টিয়ার সত্যিই খুব ভাল কাজ করেছেন। তাদের দু’জনেকই আমরা পুরষ্কৃত করব।” রাজ্যজুড়ে সিভিক ভলান্টিয়ারের কাজকর্ম নিয়ে যখন নানা বিতর্ক, সমালোচনা। তখন এই দুই পুলিশ স্বেচ্ছাসেবকের সততায় গর্বিত পুরুলিয়া জেলা পুলিশ।

[ আরও পড়ুন: ইভটিজিংয়ের বিরোধিতা, যুবকদের মারে মৃত্যু প্রতিবাদীর ]

পুরুলিয়া মফঃস্বল থানার বোঙাবাড়ির বাসিন্দা অমিত রাজোয়াড় ও সন্তোষ মাহাতো। তারা গত সাত বছর ধরে পুরুলিয়া মফঃস্বল থানায় সিভিক ভলান্টিয়ার পদে কাজ করছেন। গত রবিবার সকালে পুলিশের ওই দুই সিভিক স্বেচ্ছাসেবকই থানার পাশে এমএসএ ময়দান লাগোয়া একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের এটিএমে টাকা তুলতে যান। সেখানে এটিএম মেশিনের যে অংশ থেকে টাকা বের হয় সেখানে দু’হাজার টাকার চারটে নোট তারা পড়ে থাকতে দেখেন। আচমকা সেখানে টাকা পড়তে দেখে তারা চারপাশ ঘুরে দেখেন কেউ রয়েছে কিনা। কিন্তু কাউকে নজরে না পড়ায় তারাই ওই টাকা নিয়ে মফস্বল থানায় জমা দেন। পুলিশ আধিকারিকদেরকে বিষয়টি বিস্তারিত ভাবে জানান। সোমবার বিধি মোতাবেক পুরুলিয়া মফস্বল থানা চালান কেটে ওই টাকা সংশ্লিষ্ট রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকে জমা করে। ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষ জানায়, বিধি মোতাবেক দশ বছর এই টাকা ব্যাংকেই জমা থাকবে। কোন দাবিদার না থাকলে তা দশ বছর পর সরকারের হয়ে যাবে।

ছবি- সুনীতা সিং

[ আরও পড়ুন: নার্সিংহোমের বিল ১০ লক্ষ! টাকা মেটানোর চিন্তায় মরণঝাঁপ রোগীর ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং