BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

হুগলিতে প্রকাশ্যে বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব, লকেটের বাড়িতে ঢুকে ভাঙচুর দলেরই একাংশের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: April 19, 2019 2:01 pm|    Updated: April 19, 2019 3:20 pm

An Images

দেবাদৃতা মণ্ডল, চুঁচুড়া: গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরে এবার আক্রান্ত হুগলির বিজেপি প্রার্থী লকেট চট্টোপাধ্যায়৷ শুক্রবার বেলায় ব্যান্ডেলের যে বাড়িতে তিনি আপাতত রয়েছেন, সেখানে একদল বিজেপির কর্মী চড়াও হন৷ ঘরে ঢুকে টেলিভিশন, কম্পিউটার ভাঙচুর করা হয় বলে অভিযোগ৷ ঘটনার খবর পেয়ে সাংবাদিকরা ঘটনাস্থলে গেলে, তাঁরাও আক্রান্ত হন৷

হুগলি লোকসভা কেন্দ্র থেকে প্রার্থী হওয়ার পর থেকে লকেট চট্টোপাধ্যায় ব্যান্ডেলের লিচুবাগানে এক দলীয় কর্মীর বাড়িতেই থাকছেন৷ শুক্রবার সকাল থেকে প্রচারে বেরিয়ে চুঁচুড়া পুরসভার বেশ কয়েকটি ওয়ার্ড ঘোরার কথা ছিল লকেটের৷ সেইমতো এদিন সকাল ৯টা নাগাদ কর্মী, সমর্থকদের সঙ্গে নিয়ে তিনি বেরোন৷ ৭ নং ওয়ার্ডের অন্তর্গত ওলাইচণ্ডীতলার মন্দিরে পুজো দিয়ে শুরু করেন প্রচার৷ ৮ নং ওয়ার্ড এলাকায় পৌঁছতেই বাঁধে গন্ডগোল৷ অভিযোগ, ওই এলাকায় তারকা প্রার্থী লকেট চট্টোপাধ্যায়কে বেশি ঘোরানো হয়৷ যার ফলে তিনি ক্লান্ত হয়ে পড়েন৷ এদিকে রোদও চড়া হতে থাকে৷ লকেট চট্টোপাধ্যায় জানান, তিনি আর ঘুরবেন না৷ বাড়ি ফিরবেন৷

[আরও পড়ুন: মনোনয়ন জমা নিয়ে জটিলতা, কাঁথিতে বিজেপি প্রার্থী বদলের সম্ভাবনা]

এতেই বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন ৩ এবং ৪ নং ওয়ার্ড এলাকার বিজেপি কর্মী, সমর্থকরা৷ কেন তাঁদের এলাকায় এলেন না লকেট চট্টোপাধ্যায়? এই প্রশ্ন তুলে তাঁরা প্রথমে বিক্ষোভ দেখান৷ এরপর তাঁদেরই একাংশ সোজা পৌঁছে যান লিচুবাগানে ওই কর্মীর বাড়িতে, যেখানে লকেট চট্টোপাধ্যায় আপাতত রয়েছেন৷ অভিযোগ, সোজা তাঁর ঘরে ঢুকে ভাঙচুর চালায় ওই হামলাকারীরা৷ ভেঙে ফেলা হয় ঘরের টেলিভিশন, কম্পিউটারও৷ প্রার্থীর উদ্দেশে আক্রমণাত্মক ভাষাও তারা বলতে থাকে বলে অভিযোগ৷ এসবের পর হামলাকারীরা নিজেরাই সেখান থেকে চম্পট দেয়৷

[আরও পড়ুন: মনোনয়নে মুখোমুখি, দ্বন্দ্ব ভুলে সৌজন্য বিনিময় পার্থ-দেবলীনার]

লকেট অনুগামীদের অভিযোগ, যারা হামলা চালিয়েছে তারা সকলে হুগলির বিজেপি সভাপতি সুবীর নাগের অনুগামী৷ তাঁর ইন্ধনেই বিজেপি প্রার্থীর উপর এমন নিন্দনীয় হামলা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন তাঁরা৷ এমনিতেই দক্ষ হাতে সংগঠন চালানোর পুরস্কার হিসেবে হুগলি কেন্দ্র থেকে লোকসভা নির্বাচনের প্রার্থী হিসেবে টিকিট পাবেন বলে অনেক আশা করেছিলেন জেলা সভাপতি সুবীর নাগ৷ কিন্তু তাঁর বদলে প্রার্থী হিসেবে দাঁড় করানো হয়েছে লকেটে চট্টোপাধ্যায়কে৷ তাতে ক্ষোভ তৈরি হয়েছিল শুরু থেকেই৷ শুক্রবার লকেটের বাড়িতে হামলা তাঁর সেই ক্ষোভেরই বহিপ্রকাশ বলে মনে করা হচ্ছে৷ যদিও বিজেপি জেলা নেতৃত্ব গোটা বিষয়টির জন্য তৃণমূলকেই কাঠগড়ায় তুলেছে৷ লকেট চট্টোপাধ্যায়ের বাড়িতে হামলার খবর করতে গেলে, সেখানকার কর্মী, সমর্থকরা সাংবাদিকদের কাজে বাধা দেয় এবং মারধর করা হয় বলেও অভিযোগ৷এতে অবশ্য লকেট চট্টোপাধ্যায় তীব্র নিন্দা করে সাংবাদিকদের পাশে দাঁড়িয়েছেন৷ তাঁর অভিযোগ, দলের কেউ নয়৷ তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরাই বিজেপির পতাকা হাতে তাঁর বাড়িতে হামলা চালিয়েছে৷ ভোটের আগে হুগলিতে ফের প্রকাশ্যে চলে এল বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব৷ এই ঘটনা ভোটবাক্সে প্রভাব ফেলবে বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞ মহলের একাংশ৷

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement