৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

প্রতিবেশীকে ধর্ষণের ‘অপবাদ’, অপমানে আত্মঘাতী ব্যক্তি

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: May 26, 2019 5:03 pm|    Updated: May 26, 2019 5:03 pm

An Images

দেবব্রত মণ্ডল, বারুইপুর:  প্রতিবেশীকে ধর্ষণের অপবাদ!  অপমানে আত্মঘাতী হলেন ব্যক্তি। শনিবার গভীর রাতে চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার বারুইপুরের চম্পাহাটি এলাকায়। ব্যক্তির মৃত্যুর খবর প্রকাশ্যে আসতেই দেহ আটকে বিক্ষোভ দেখায় স্থানীয়রা। ইতিমধ্যেই, অভিযুক্ত মহিলাকে আটক করেছে বারুইপুর থানার পুলিশ।  

[আরও পড়ুন: বিজেপিকে ভোট দেওয়ায় গ্রামে ঢুকে ‘দাদাগিরি’, তৃণমূল নেতাদের পালটা গণধোলাই]

ঘটনার সূত্রপাত বৃহস্পতিবার। জানা গিয়েছে, ওই দিন গোপাল সর্দার নামে ওই ব্যক্তির প্রতিবেশী লক্ষ্মী সর্দার তাঁর বাড়ির পাশের বাগান থেকে পেঁপে তুলছিলেন। সেই সময় গোপাল সর্দার মহিলার বাড়িতে যান। বাড়িতে তখন একাই ছিলেন ওই মহিলা। অভিযোগ, এরপরই গোপালের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তোলেন ওই প্রতিবেশী। ধর্ষণের অভিযোগে গোপালকে জেলে দেওয়ার হুমকিও দেন তিনি। অপমানিত হয়েই বাড়ি ফিরে যান গোপাল। এরপর শনিবার বিষ খেয়ে আত্মঘাতী হন তিনি।

মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়তেই গোপালবাবুর দেহ নিয়ে অভিযুক্ত মহিলার বাড়িতে চড়াও হন স্থানীয়রা। ক্ষতিপূরণের দাবিতে দীর্ঘক্ষণ ওই মহিলার বাড়ির বাইরে দেহ রেখে বিক্ষোভ দেখান তাঁরা। ঘরবন্দি করে রাখা হয় ওই মহিলাকে। তাঁদের অভিযোগ, লক্ষ্মীর অপমানের জেরেই আত্মঘাতী হয়েছেন গোপাল।

[আরও পড়ুন: ভোটে হেরে সোশ্যাল মিডিয়ায় দুঃখপ্রকাশ বর্ধমান পূর্বের বিজেপি প্রার্থীর]

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় বারুইপুর থানার পুলিশ। স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে পরিস্থিতি আয়ত্তে আনার চেষ্টাও করেন তাঁরা।  যদিও তাঁদের কথা শুনতে রাজিই হননি বিক্ষোভকারীরা। উলটে পুলিশকে ঘিরেও বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন আন্দোলনকারীরা। জানতে পেরে ঘটনাস্থলে যান দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার জেলা পরিষদের সদস্য তথা স্থানীয় তৃণমূল নেতা জয়ন্ত ভদ্র। বিক্ষোভ তুলতে অভিযোগকারী মহিলা ও আন্দোলনকারীদের সঙ্গে আলোচনায় বসেন তিনি। অভিযুক্ত মহিলা মৃতের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার আশ্বাস দিলে বিক্ষোভ তুলে দেন আন্দোলনকারীরা। পুলিশ সূত্রে খবর, ইতিমধ্যেই অভিযুক্ত লক্ষ্মী সর্দারকে আটক করেছে পুলিশ। তদন্তের স্বার্থে স্থানীয়দের জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলে জানিয়েছেন তদন্তকারীরা। 

ছবি: বিশ্বজিৎ নস্কর৷ 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement