১ আষাঢ়  ১৪২৬  রবিবার ১৬ জুন ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ

১ আষাঢ়  ১৪২৬  রবিবার ১৬ জুন ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জাত তুলে কটূক্তি করার পাশাপাশি বিভিন্ন ভাবে মানসিক হেনস্তা করছিল তিনজন সিনিয়ার। এর জেরে আত্মঘাতী হলেন এক মহিলা চিকিৎসক। ২৬ বছর বয়সী ওই যুবতির নাম পায়েল সলমন তাধবি। ঘটনাটি ঘটেছে মধ্য মুম্বইয়ের বি ওয়াই এল নায়ার সরকারি হাসপাতালের হস্টেলে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, কিছুদিন ধরেই ওই সরকারি হাসপাতালের হস্টেলের এক আবাসিক পায়েলকে জাত তুলে কটূক্তি করছিল তাঁর তিনজন সিনিয়ার। বিষয়টি নিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েও কোনও লাভ হয়নি। উলটে দিন দিন পরিস্থিতি আরও খারাপ হচ্ছিল। বাধ্য হয়ে গত বুধবার রাতে হস্টেলের ঘরে গলায় দড়ি দিয়ে ঝুলে পড়েন পায়েল। এই ঘটনায় তাঁর তিন সিনিয়র হেমা আহুজা, ভক্তি মাহেরে ও অঙ্কিতা খান্ডেলওয়ালের নামে আগরিপাদা পুলিশ স্টেশনে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তদন্ত চলছে।

[আরও পড়ুন- লোকসভায় ২৭ জন মুসলিম প্রার্থীর জয়, একজনও বিজেপির নন]

স্থানীয় এক পুলিশ আধিকারিক জানান, বি ওয়াই এল নায়ার হাসপাতালে গাইনোকোলজি বিভাগের স্নাতকোত্তর স্তরের পড়ুয়া ছিলেন ওই যুবতী। সিনিয়রদের হেনস্তার জেরে কিছুদিন ধরেই মানসিক হতাশায় ভুগছিলেন। প্রকাশ্যে কটূক্তি করার পাশাপাশি অভিযুক্তরা পড়ুয়াদের একটি হোয়াটসঅ্যাপে গ্রুপেও পায়েলকে নিয়ে বিভিন্ন বিতর্কিত মন্তব্য করে। এর জেরেই আত্মঘাতী হন তিনি।

[আরও পড়ুন- গোমাংস রাখার অভিযোগে মুসলিমদের বেধড়ক মার, ভাইরাল গোরক্ষকদের তাণ্ডবের ভিডিও]

মৃতের পরিবারের অভিযোগ, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ জানিয়েছিলেন পায়েল। কিন্তু, তাঁরা কোনও গুরুত্ব দেয়নি। বাধ্য হয়ে পরিবারের লোকদেরও বিষয়টি জানান। পরিবারের পক্ষ থেকে বিষয়টি স্থানীয় প্রশাসনকে জানানোর কথা বলা হয়েছিল। কিন্তু, তা না করে আত্মহত্যার পথ বেছে নিলেন পায়েল। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের উদাসীনতার জন্যই এই ঘটনা ঘটল। ওই হাসপাতালের এক সিনিয়র চিকিৎসক জানান, ওই যুবতী বা তাঁর পরিবারের তরফে হাসপাতালের কর্তৃপক্ষের কাছে এই বিষয়ে কোনও লিখিত অভিযোগ করা হয়নি। মৌখিকভাবে কোনও অভিযোগ জানিয়ে ছিলেন কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং