BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে দেওয়া হচ্ছে নিম্নমানের খাবার! বিক্ষোভ পরিযায়ী শ্রমিকদের

Published by: Sayani Sen |    Posted: April 29, 2020 6:52 pm|    Updated: April 29, 2020 6:52 pm

An Images

অরূপ বসাক, মালবাজার: কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে দেওয়া খাবার অত্যন্ত নিম্নমানের, এই অভিযোগে বিক্ষোভে শামিল পরিযায়ী শ্রমিকরা। বিক্ষোভের জেরে বুধবার দিনভর উত্তাল মালবাজার মহকুমার কোয়ারেন্টাইন সেন্টার। সামান্য পরিমাণ খাবারও এদিন মুখে তোলেননি বিক্ষোভকারীরা। দায়িত্বপ্রাপ্ত স্বাস্থ্যকর্মীরাও পরিযায়ী শ্রমিকদের অভিযোগের সত্যতা রয়েছে বলেই স্বীকার করে নিয়েছেন। গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধানকে অভিযোগও জানিয়েছেন তাঁরা।

বিভিন্ন পরিযায়ী শ্রমিকদের রাখা হয়েছে মালবাজার মহকুমার বেশ কিছু কোয়ারান্টাইন সেন্টারে। গত এক মাস যাবৎ বিভিন্ন কোয়ারান্টাইন সেন্টারে রয়েছেন তাঁরা। মালবাজার মহকুমার ওদলাবাড়ি বিধানপল্লি ফুটবল মাঠের পাশের দু’টি জায়গায় রাখা হয়েছে তাঁদের। বর্তমানে এই কোয়ারান্টাইন সেন্টারে রয়েছেন ২৮ জন। আর এই কোয়ারান্টাইন সেন্টারে খাবারের মান নিয়ে ক্ষোভপ্রকাশ করল পরিযায়ী শ্রমিকেরা। তাঁদের অভিযোগ, খাবারের মান খুব খারাপ। তা মুখে দেওয়ার যোগ্য নয়। তাই সেই খাবারও খাননি পরিযায়ী শ্রমিকেরা। কোয়ারান্টাইন সেন্টারের বাইরে খাবার রেখে দেন তাঁরা। পরিযায়ী শ্রমিকরা বলছেন, “বেশ কয়েকদিন ধরেই আমাদের এই খারাপ খাবার দেওয়া হচ্ছিল। বারবার বলেও কোন লাভ হয়নি। গলে যাওয়া ভাত, ভাতের মধ্যে আধা কাঁচা সেদ্ধ বেগুন, আলু। যা মুখে দেওয়ার অযোগ্য। তারপরেও আমরা সেই খাবার খেয়ে যাচ্ছি। কিন্তু বুধবার খাবারের মান এতটাই খারাপ যে সেই খাবার মুখে দেওয়া যায় না। তাই বাধ্য হয় সব খাবার আমরা বাইরে রেখে দিয়েছি।”

[আরও পড়ুন: কমিউনিটি কিচেনের খাবারের মান নিয়ে ফেসবুকে আপত্তিকর পোস্ট, ধৃত হাবড়ার বধূ]

এ বিষয়ে এই কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের দায়িত্বপ্রাপ্ত স্বাস্থ্যকর্মীরাও একই অভিযোগ করেছেন, তাঁদের বক্তব্য খাবারের মান খুব খারাপ। সে কারণে পরিযায়ী শ্রমিকেরা বুধবার কোন খাবার খায়নি। এব্যাপারে ওদলাবাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতে রিপোর্ট পাঠানো হয়েছে। যাতে পরবর্তীকালে ভাল খাবার দেওয়া হয় সে বিষয়ে কথাও বলেছেন তাঁরা। এব্যাপারে ওদলাবাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান মধুমিতা ঘোষ বলেন, “আমরা এই খাবারের দায়িত্ব দিয়েছিলাম একটি স্বনির্ভর গোষ্ঠীকে। তারাই খাবার দিত ওই কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে। এতদিন কোন অভিযোগ আমরা পাইনি। তবে এখন যখন পেয়েছি তখন অন্য ব্যবস্থা নেবো। “

[আরও পড়ুন: উপার্জনের আশায় জঙ্গলে মাছ ধরতে যাওয়াই কাল, বাঘের আক্রমণে মৃত্যু মৎস্যজীবীর]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement