BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

যাত্রা শুরু ৯৫টি বাসের, রবিবারের মধ্যে বাংলায় ফিরবেন পড়ুয়ারা

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: April 30, 2020 7:21 pm|    Updated: April 30, 2020 7:21 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তিনদিন আগে টুইট করে রাজস্থানের কোটায় আটকে থাকা বাংলার পড়ুয়াদের ফিরিয়ে আনার বিষয়ে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই অনুযায়ী বুধবার ৯৫টি বাসে চেপে পশ্চিমবঙ্গের উদ্দেশে রওনা দেন সেখানে আটকে থাকা ২৩৬৮ পড়ুয়া। বৃহস্পতিবার তাঁরা উত্তরপ্রদেশের রাজধানী লখনউতে পৌঁছেছেন বলে খবর পাওয়া গিয়েছে।

গত সোমবার মুখ্যমন্ত্রী টুইট করে আশ্বাস দেওয়া পরেই তাঁদের বাড়ি ফেরাতে উদ্যোগ নেয় রাজ্য সরকার। গতকাল সেই অনুযায়ী রাজস্থানের কোটা থেকে পড়ুয়াদের নিয়ে বাসগুলি রওনা দেন। তার আগে অবশ্য তাঁদের শারীরিক পরীক্ষা করা হয়েছিল। আজ লখনউ পৌঁছানোর পরে ফের একবার পরীক্ষা করা হয় তাঁদের। আশা করা যাচ্ছে, রবিবারের মধ্যে রাজ্যে এসে যাবেন তাঁরা।

[আরও পড়ুন: করোনা দাপটের মাঝেই শুরু সীমান্ত বাণিজ্য, ৩৭ দিন পর খুলল পেট্রাপোল বন্দর ]

প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, জয়েন্ট এন্ট্রাস-সহ বিভিন্ন সর্বভারতীয় প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষা ও পড়াশোনার জন্য রাজস্থানের কোটায় বাংলার অনেক পড়ুয়া গিয়েছিলেন। কিন্তু, করোনার সংক্রমণ রুখতে দেশজুড়ে লকডাউন (Lock down) জারি হওয়ার ফলে সেখানে আটকে পড়েছিলেন তাঁরা। এর ফলে ওই পড়ুয়াদের পাশাপাশি চিন্তায় দিন কাটাচ্ছিলেন তাঁদের অভিভাবকরাও। অবশেষে রাজ্য সরকারের তৎপরতায় হল সব চিন্তার অবসান। রাজ্যে ঢোকার পর ওই পড়ুয়াদের শারীরিক পরীক্ষা করা হবে। তারপরই সরকারি ব্যবস্থাপনায় তাঁদের বাড়ি পৌঁছে দেওয়া হবে।

গত সোমবার ভিন রাজ্যে আটকে থাকা পড়ুয়া, শ্রমিকদের পরিবারকে আশ্বস্ত করতে পরপর দুটি টুইট করেন মুখ্যমন্ত্রী। টুইটারে তিনি লেখেন, ‘লকডাউনে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে আটকে থাকা রাজ্যবাসীকে বাড়িতে রাজ্য সরকার সবরকম সাহায্য করবে। আমি সরকারি আধিকারিকদের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করতে বলেছি। যতক্ষণ আমি আছি, রাজ্যের কারোর নিজেকে অসহায় মনে করার প্রয়োজন নেই। সংকটের সময় আমি সকলের সঙ্গে আছি।’

[আরও পড়ুন: হার মেনেছে করোনা, সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরলেন নাবালিকা-সহ বর্ধমানের ৩ বাসিন্দা]

পরের টুইটে তিনি আরও লেখেন, ‘আমি ব্যক্তিগতভাবে গোটা বিষয়ের উপর নজর রাখছি। সাহায্যের কোনও খামতি থাকবে না। কোটায় আটকে থাকা পড়ুয়াদের ফিরিয়ে আনতে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। দ্রুত তাঁরা বাড়ি ফিরে আসবেন।’ পরে মুখ্যমন্ত্রীর টুইটটি রিটুইট করেন তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। লেখেন, ‘চিন্তা নেই, দিদি আছেন।’

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement