২ ভাদ্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২০ আগস্ট ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২ ভাদ্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২০ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লোকসভা নির্বাচনের আবহে বিপাকে জড়ালেন নদিয়ার বিজেপি নেতা মহাদেব সরকার এবং গেরুয়া শিবিরের প্রার্থী কল্যাণ চৌবে৷ অশ্লীল ভাষায় তাঁকে আক্রমণ করা হয়েছে, এই অভিযোগে সর্বোচ্চ আদালতের দ্বারস্থ হন কৃষ্ণনগরের তৃণমূল প্রার্থী মহুয়া মৈত্র৷ সেই অভিযোগ খতিয়ে দেখেই নির্বাচন কমিশনকে ওই দুই বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট৷

[ আরও পড়ুন: মিষ্টি নিয়ে রাজনীতির অভিযোগ মুখ্যমন্ত্রীর, মমতার সৌজন্যকে সমর্থন দিলীপের]

গত ২২ এপ্রিল দলীয় প্রার্থী কল্যাণ চৌবের সমর্থনে কৃষ্ণনগরে একটি জনসভা করে বিজেপি৷ তাতে বক্তব্য রাখেন নদিয়া জেলা বিজেপি সভাপতি মহাদেব সরকার৷ ওই সভায় মহুয়া মৈত্রকে সরাসরি আক্রমণ করেন তিনি৷ তাঁকে ‘সুন্দরী রমণী’ বলে উল্লেখ করেন মহাদেব সরকার৷ তিনি বলেন, ‘‘সৌন্দর্য্যে ভর করেই ভোট বৈতরণী পার হওয়ার চেষ্টা করছে শাসক দল৷’’ মহুয়া মৈত্রের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘বিদেশে পড়ায় ভারতীয় সংস্কৃতি ভুলে গিয়েছেন আপনি৷ লজ্জাই নারীর ভূষণ৷ কিন্তু আপনি তা মানেন না৷ আপনি রঙিন জল পান করেন৷ আপনাকে ভারতীয় নারীরা মেনে নেবে না৷’’

[ আরও পড়ুন: ‘১২০টির বেশি আসন পেলে রাজনীতি ছেড়ে দেব’, বিজেপিকে চ্যালেঞ্জ অনুব্রতর]

কুরুচিকর আক্রমণের অভিযোগে সরব হন কৃষ্ণনগরের তৃণমূল প্রার্থী৷ এই অভিযোগে সর্বোচ্চ আদালতের দ্বারস্থ হন মহুয়া মৈত্র। গোটা ঘটনা জানিয়ে তিনি আবেদন করেন, অভিযুক্ত বিজেপি নেতাদের সব মিছিল, জনসভা, রোড শো ও প্রচার কমপক্ষে তিনদিন অর্থাৎ ৭২ ঘণ্টার জন্য বন্ধ করে দেওয়া হোক। বৃহস্পতিবার প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চে মামলার শুনানি হয়৷ সেই মামলার শুনানিতে সুপ্রিম কোর্ট নির্বাচন কমিশনকে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়৷ সর্বোচ্চ আদালতের নির্দেশে ভোটের আবহে বিপাকে গেরুয়া শিবিরে৷ যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ায় শীর্ষ আদালতের বিচারকদের ধন্যবাদজ্ঞাপন করেছেন তৃণমূল প্রার্থী মহুয়া মৈত্র৷ তবে এ বিষয়ে এখনও বিজেপির তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি৷ 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং