২৮ কার্তিক  ১৪২৬  শুক্রবার ১৫ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৮ কার্তিক  ১৪২৬  শুক্রবার ১৫ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সুমিত বিশ্বাস, পুরুলিয়া: ধনের দেবী লক্ষ্মী উমারই রূপ। তাই দুর্গা প্রতিমা তৈরিতে যে এগারো রকমের মাটি প্রয়োজন হয়, সেই মৃত্তিকা দিয়েই লক্ষ্মী মূর্তি গড়লেন পুরুলিয়ার এক শিক্ষক। লক্ষ্মীরই আলয় তৈরি করলেন পাটকাঠি, শন, দড়ি ও চট দিয়ে। নিজের হাতে দেড় ফুটের লক্ষ্মী গড়ে সোনার গয়নায় সাজিয়ে তাক লাগিয়ে দিলেন পুরুলিয়ার রাঁচি রোড বাই লেনের বাসিন্দা, পেশায় শিক্ষক শংকর মুখোপাধ্যায়। তাঁর হাতে তৈরি মা লক্ষ্মীর মুখের আদলও খানিকটা আলাদা।

[আরও পড়ুন: লক্ষ্মীপুজোতেও থিমের রমরমা, ঘাটালে নানা সাজে তৈরি হচ্ছে মণ্ডপ]

ছোটবেলা থেকেই হাতের কাজে নিজের দক্ষতার পরিচয় দিয়েছেন তিনি। হাতে–কলমে কখনও মূর্তি তৈরির কাজ না শিখলেও, প্রতিমার টানে কুমোর পাড়ায় বসে থাকা আজও তাঁর অভ্যাস। কুমোরদের কাজ দেখেই গত ১৩ বছর ধরে নিজের হাতে লক্ষ্মীর মূর্তি গড়ে বাড়িতে পুজে করে আসছেন বেলকুঁড়ির রামকৃষ্ণ বিবেকানন্দ মিশনের সংস্কৃত শিক্ষক শংকর মুখোপাধ্যায়। পুজোর দিনে নিজের হাতে আলপনাও দেন তিনি। শিক্ষকতার ফাঁকে রাত জেগেই চলে তাঁর এই শিল্পকর্ম। যা নজর কাড়ে সকলের।

prl-laxmi1
প্রায় এক বছর ধরে যজ্ঞশালা, সমুদ্র, গোষ্ঠ, চতুষ্পদ, বাল্মীকি, তীর্থ দেবদ্বার, পুষ্করিণী, কুশমূল, রাজদ্বার, গঙ্গা ও বেশ্যাদ্বার থেকে মাটি সংগ্রহ করেছেন শংকর মুখোপাধ্যায়। তা দিয়েই গড়ে তুলেছেন ধনদেবীর অবয়ব। সেই মহালয়া থেকে তাঁর এই প্রতিমা তৈরির কাজ শুরু হয়। আর পাট মন্দিরে লক্ষ্মীর আলয় তৈরি হয়েছে দু’মাস ধরে। ফিনিশিং টাচও শেষ।
বছর তেরো আগে বাজার থেকে মাটির মূর্তি কিনে তা টবের জলে ভাসিয়ে মাটি রেখে দিয়েছিলেন। সেই মাটিই আজও মূর্তি গড়ার কাজে ব্যবহার করে আসছেন শংকরবাবু। গত বছর পঞ্চশস্য দিয়ে প্রতিমা গড়েছিলেন। তার আগে তাঁর সৃষ্টিকর্মের মূল উপকরণ ছিল ফেলে দেওয়া নারকেলের যাবতীয় সামগ্রী। শিক্ষকের কথায়, “এভাবেই নিত্য নতুন ভাবনায় যেন লক্ষ্মীর আরাধনা করে যেতে পারি। ধনদেবীর কাছে এটাই আমার প্রার্থনা।”

[আরও পড়ুন: ফেজ মাথায় লক্ষ্মীর আরাধনা, সম্প্রীতির ছবি পূর্ব বর্ধমানের এই পুজোয়]

শুধু প্রতিমাই নয়, অপরূপ কারুকাজে তিনি সাজিয়েছেন লক্ষ্মীর আলয়টিও। এই পাট মন্দিরের মাথায় রেখেছেন নারায়ণকে। আছে তার বাহন গরুড়। লক্ষ্মীর আসনের দু’পাশে যেন তাঁকে বরণ করছেন দুই সখী। রয়েছে ধনদেবীর বাহন পেঁচাও। সবই  পাটকাঠি, শন, চট ও দড়ি দিয়ে তৈরি। এবছর তিনি নিজের তৈরি লক্ষ্মী প্রতিমাকে সাজিয়েছেন লাল বেনারসিতে। গলার হার, চিক, মুকুট, কানের দুল, নথ, কোমরবন্ধনী, চুড়ি, আংটি দিয়ে সোনায় মুড়েছেন। পাট মন্দিরে ওই দেড় ফুটের ধনদেবী যেন নিছকই মৃন্ময়ী নন, সাক্ষাৎ মা লক্ষ্মী!

prl-laxmi2
ছবি: সুনীতা সিং।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং