BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৭ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

এবার ঘরে বসেই উপভোগ করতে পারবেন দুর্গাপুজোর বিশেষ মুহূর্ত, জানেন কীভাবে?

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: October 2, 2020 9:35 pm|    Updated: October 10, 2020 12:40 pm

An Images

সম্যক খান, মেদিনীপুর: করোনার (Coronavirus) কারণে প্রতিবারের মতো করে চলতি বছরে মণ্ডপে মণ্ডপে ঘুরে প্রতিমা দর্শন কার্যত অসম্ভব। সেই কারণেই বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গোৎসবের বিশেষ মুহূর্ত মানুষের ঘরে পৌঁছে দিতে চলেছে মেদিনীপুর পুরসভা। আরতি থেকে শুরু করে পুজোর বিশেষ বিশেষ মুহূর্ত সবকিছু ইউটিউবের মাধ্যমে সকলের সামনে তুলে ধরার চিন্তাভাবনা চলছে বলেই খবর।

জানা গিয়েছে, পুরসভার কথাবার্তা চলছে স্থানীয় কেবল নেটওয়ার্ক সংস্থাগুলির সঙ্গেও। মেদিনীপুর পুরসভার প্রশাসক তথা সদর মহকুমাশাসক দীননারায়ণ ঘোষ জানান, “পুজোমণ্ডপে ভিড় কমাতেই বিভিন্ন উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। তার মধ্যে বাঙালির আবেগ এবং ভক্তির কথা মাথায় রেখে অনলাইন পুজো পরিক্রমা ও কিছু কিছু জিনিস লাইভ টেলিকাস্টের ব্যবস্থা করার চিন্তাভাবনা চলছে। এর জন্য কেবল অপারেটর থেকে শুরু করে পুজো কমিটির কর্মকর্তাদের সঙ্গেও আলোচনা চলছে। সম্প্রতি শহরের পুজো কমিটির কর্মকর্তাদের নিয়ে বৈঠকে বসেছিলেন মহকুমাশাসক। সেখানেও এই প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।”

[আরও পড়ুন:রান্নার গ্যাস মজুত করে বেআইনি ব্যবসা, ৯৫টি সিলিন্ডার-সহ ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করল EB]

মেদিনীপুর শহরে ছোটবড় মিলিয়ে শতাধিক পুজো হয়। তার মধ্যে বেশ কিছু থাকে থিমনির্ভর বিগ বাজেটের পুজো। যা দেখতে গ্রামগঞ্জ থেকেও মানুষ ভিড় জমান শহরে। ফলে ষষ্ঠী বা সপ্তমী থেকেই লোকে লোকারণ্য হয়ে যায় ওই সব পুজো মণ্ডপে। প্রতিদিন বিশেষ করে সন্ধেয় সারা শহর জুড়ে লক্ষাধিক মানুষের সমাগম ঘটে। কিন্তু এবার পরিস্থিতি অন্য। করোনা ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। পশ্চিম মেদিনীপুর জেলাতেই করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দশ হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে। মারণ ভাইরাসের দাপটের কারণে কলকাতা-সহ সারা রাজ্যজুড়েই যথাসম্ভব খোলামেলা মণ্ডপ করার আহ্বান জানিয়েছেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ও (Mamata Banerjee)। সেই ডাকে সাড়া দিচ্ছে পুজো কমিটিগুলিও। মণ্ডপগুলিতে ভিড় এড়ানোরই পরামর্শ দিচ্ছেন পুলিশ ও প্রশাসনের কর্তারাও। কিন্তু পুজো নিয়ে মানুষের যে আবেগ কাজ করে সেই আবেগকে ধরে রাখতেই অনলাইনের মাধ্যমে তা ঘরে ঘরে পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। দীননারায়ণবাবুর কথায়, “পুরসভার পক্ষ থেকে শহরের নামকরা পুজোগুলি পরিক্রমা করার ব্যবস্থা থাকছে। এছাড়া অন্যান্য পুজো উদ্যোক্তাদেরও অনুরোধ করা হয়েছে যে তাঁরা যদি তাঁদের নিজেদের পুজোর ছবি ও ভিডিও তুলে পাঠান তাহলে সেগুলিও দেখানোর ব্যবস্থা করা হবে। ফলে বাড়িতে বসেই শহরের পুজোগুলি প্রত্যক্ষ করে নিতে পারবেন ঘরবন্দি মানুষজন।”

[আরও পড়ুন:দৈনিক সংক্রমণ ও মৃত্যুর নিরিখে ফের শীর্ষে কলকাতা, সুস্থতার হারে সামান্য স্বস্তি]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement