০৯ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  বুধবার ২৫ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

রেললাইনে বসেই মোবাইল গেমে মজে, অশোকনগরে ট্রেনের ধাক্কায় মৃত ২ কিশোর

Published by: Paramita Paul |    Posted: November 8, 2021 9:45 pm|    Updated: November 8, 2021 9:50 pm

Train mows two to death at Ashoknagar | Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রেললাইনে (Rail) বসে মোবাইল গেমে মজে তিন কিশোর। কানে ইয়ারফোন। ট্রেনটি বারবার হর্ন দেওয়া সত্ত্বেও শুনতে পায়নি তারা। শেষপর্যন্ত সেই অসাবধানতার জেরে প্রাণ গেল দুই কিশোরের। ট্রেনের ধাক্কায় বেঘোরে মৃত্যু হল তাদের। সোমবার রাতে গুমা ও অশোকনগর (Ashok Nagar) স্টেশনের মাঝে ঘটে দুর্ঘটনাটি।

স্থানীয় সূত্রে খবর, গুমা ও অশোকনগর স্টেশনের মাঝে রেললাইনের উপর বসেই গেম খেলছিলেন তিন কিশোর। সেই সময় ঠাকুরনগর-শিয়ালদহ লোকাল ট্রেনটি ওই লাইন দিয়েই আসছিল। তিন চালককে বসে থাকতে দেখে বারবার হর্ন দেন চালক। কিন্তু গেমে বুঁদ কিশোররা সেই ট্রেনের আওয়াজ শুনতে পায়নি।

[আরও পড়ুন: মা-মেয়েকে বেঁধে বেধড়ক মার, চুল কেটে নেওয়ার হুমকি! নৃশংসতার সাক্ষী ডায়মন্ড হারবার]

Here are some tips to solve hanging problem in your smartphone

 

ট্রেনের ধাক্কায় প্রাণ যায় তাদের। ঘটনাস্থলে গিয়েছে হাবরার জিআরপি। সূত্রের খবর, দুই কিশোরের ছিন্নভিন্ন দেহ মিললেও আরেকজনের জদেহ এখনও মেলেনি। স্বাভাবিকভাবেই এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। প্রতিবেদন প্রকাশিত হওয়া পর্যন্ত মৃত পরিচয় জানা যায়নি।

[আরও পড়ুন: ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের ছবি প্রেমিকার বাবাকে পাঠিয়ে ভাইরাল করার হুমকি প্রেমিকের! তারপর…]

দিন কয়েক আগেই একই ঘটনা ঘটে রায়গঞ্জে। বেশ কয়েকজন মিলে উত্তর দিনাজপুরের (North Dinajpur) চোপড়ার ধূমডাঙ্গি এলাকায় রেললাইনের উপরে বসেছিলেন। চলছিল গল্পগুজব। সকলের হাতে ছিল মোবাইল। কানে হেডফোন। ঠিক সেই সময় আপ এবং ডাউন লাইন দিয়ে দু’টি ট্রেন চলে আসে। তা নজর এড়িয়ে যায় প্রাণ সকলের। যখন ট্রেন আসার কথা বুঝতে পারেন ওই যুবকেরা, তখন আর প্রাণে বেঁচে ফেরার ফুরসত ছিল না। আর তার ফলে ঘটল বিপত্তি। রেল সূত্রে খবর, ওই দুর্ঘটনায় দু’জনের মৃত্যু হয়েছে। যদিও স্থানীয়দের দাবি করেছিল, প্রাণ গিয়েছে মোট চার যুবকের।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে