২২  আশ্বিন  ১৪২৯  শুক্রবার ৭ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

সামসেরগঞ্জ নির্বাচন: ভোটের আগে বেঁকে বসলেন কংগ্রেস প্রার্থী, পরিস্থিতি সামলাতে আসরে অধীর

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: September 13, 2021 11:47 am|    Updated: September 13, 2021 11:56 am

WB Assembly Elections 2021: Congress faces crisis at Samserganj as the candidate doesn't wants to fight | Sangbad Pratidin

শাহজাদ হোসেন, ফরাক্কা: সামশেরগঞ্জ বিধানসভা নির্বাচনে কংগ্রেস (Congress) প্রার্থী নিয়ে নতুন করে টানাপোড়েন শুরু হল। আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর সামশেরগঞ্জ ও জঙ্গিপুরে ভোট। নির্বাচন কমিশন দিন ঘোষণার পরই সামশেরগঞ্জের (Samserganj কংগ্রেস প্রার্থী জইদুর রহমান নির্বাচনী লড়াই থেকে সরে আসার কথা জানান। ফলে ভোটের মুখে প্রার্থী নিয়ে বিড়ম্বনায় পড়ে দল কংগ্রেস। তবে গত সপ্তাহান্তে মাত্র ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই পট বদল। প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীররঞ্জন চৌধুরীর আবেদন মেনে ফের ভোটে দাঁড়াতে রাজি হচ্ছেন জইদুর রহমান। যদিও এ নিয়ে তিনি চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাননি।

জঙ্গিপুর সাংগঠনিক জেলা তৃণমূল (TMC)সভাপতি সাংসদ খলিলুর রহমানের ভাই জইদুর। তাঁকেই সামশেরগঞ্জের প্রার্থী করা হয়েছিল। কিন্তু এ মাসের শুরুতে নির্বাচন কমিশন এই কেন্দ্রের দিনক্ষণ ঘোষণার পর তিনি ভোটের লড়াই থেকে সরে আসার কথা ঘোষণা করেন। এরপর শনিবার প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি তথা বহরমপুরের সাংসদ অধীররঞ্জন চৌধুরী (Adhir Ranjan Chowdhury) সাংবাদিক সম্মেলনে জইদুর রহমানকে প্রার্থী হিসেবে লড়াই ময়দানে থাকার আবেদন জানান। তাঁর মত পরিবর্তনের অনুরোধ করেন। অধীরের দাবি, সামশেরগঞ্জে কংগ্রেস প্রার্থী জইদুর থাকলে ভোটে জেতা নিয়ে তিনি আশাবাদী।

[আরও পড়ুন: গাইঘাটায় পদ্ম শিবিরে ভাঙন, বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে পঞ্চায়েত সদস্য ও যুব মোর্চার সভাপতি-সহ বহু]

অধীরের এই বার্তার ২৪ ঘন্টার মধ্যে সামশেরগঞ্জের রাজনৈতিক পট পরিবর্তন ঘটে। রবিবার সন্ধেবেলা সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে জইদুর রহমান জানান, নির্বাচনের প্রাক্কালে তিনি প্রার্থী হিসেবে সরে দাঁড়ানোয় কংগ্রেস ধর্মসংকটে পড়েছে, তা তিনি বুঝতে পারছেন। তিনি আরও বলেন, ”আমি সামশেরগঞ্জ ব্লক কংগ্রেস সভাপতি ও কংগ্রেস কর্মীদের সঙ্গে আরও একবার আলোচনায় বসব। তাঁদের সঙ্গে কথা বলে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করব। প্রার্থী হিসাবে কর্মীদের দাবি আছে, এটা সঠিক।”

এপ্রিল মাসে সামশেরগঞ্জ বিধানসভা নির্বাচন (Assembly Elections 2021) হওয়ার কথা ছিল। ১৪ এপ্রিল কংগ্রেস প্রার্থী রেজাউল হক করোনা (Coronavirus)আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর কারণে নির্বাচন পিছিয়ে দেয় নির্বাচন কমিশন। নতুন করে নির্বাচনের দিন ঘোষণা করলে নির্বাচন কমিশন কংগ্রেস এই আসনে প্রার্থী করে জঙ্গিপুর লোকসভার তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদ খলিলুর রহমানের ভাইকে। তিনি কংগ্রেস প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন জমাও দেন। করোনা আবহে নির্বাচন কমিশন সামশেরগঞ্জ ও জঙ্গিপুর বিধানসভার নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করে। নতুন করে ৩০ শে সেপ্টেম্বর ভবানীপুর উপনির্বাচনের সঙ্গে মুর্শিদাবাদের জঙ্গিপুর ও সামশেরগঞ্জের নির্বাচনের দিন ঘোষণা করা হয়। নির্বাচনের দিন ঘোষণা হইতে বেঁকে বসেন কংগ্রেস প্রার্থী জইদুর রহমান। তিনি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর কথা ঘোষণা করেন। বিপাকে পড়ে কংগ্রেস।

[আরও পড়ুন: Weather Report: ওড়িশা উপকূলে গভীর নিম্নচাপের প্রভাব, সপ্তাহের শুরুতেই বঙ্গে ঘনাল দুর্যোগ]

এখন কংগ্রেস প্রার্থী জইদুর রহমান দলীয় নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠকে বসে কী সিদ্ধান্ত নেন, সেদিকে তাকিয়ে রাজনৈতিক মহল। এককথায়, কংগ্রেসের রাজনৈতিক দাবার চালে জঙ্গিপুর জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি, সাংসদ খলিলুর রহমানের পরিবারে রাজনৈতিক ফাটল দেখা দেয় কি না, সেটাই দেখার বিষয়।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে