২৩ বৈশাখ  ১৪২৮  শুক্রবার ৭ মে ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

Arjun Singh Interview: 'রাজনীতিতে রিটেক নেই', রাজ চক্রবর্তীকে বিঁধে মন্তব্য অর্জুন সিংয়ের

Published by: Suparna Majumder |    Posted: April 22, 2021 4:13 pm|    Updated: April 22, 2021 8:08 pm

An Images

মণিশংকর চৌধুরী ও সুলয়া সিংহ: “রাজনীতিতে রিটেক নেই। এখানে একটাই টেক। হয় জিতবেন, নয় হারবেন।” ভোট ষষ্ঠীর দিন সংবাদ প্রতিদিন ফেসবুক লাইভে তৃণমূলের তারকা প্রার্থী রাজ চক্রবর্তীকে (Raj Chakraborty) বিঁধে একথাই বললেন বারাকপুরের (Barrackpur) বিজেপি সেনাপতি অর্জুন সিং (Arjun Singh)।

প্রথম সিপিএম। পরে তৃণমূল। এবার বিজেপির হয়ে ভোটের ময়দানে অর্জুন সিং। বৃহস্পতিবার ভাটপাড়ায় সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটালের মুখোমুখি হন বিজেপি সাংসদ (BJP MP)। সেখানেই বলেন, “চলচ্চিত্রে পরিচালনা আর রাজনীতির মাঠে নেমে পরিচালনার মধ্যে তফাত আছে। ওখানে কাট আছে, শট আছে আবার রিটেক আছে। এখানে কিছু আছে? এখানে ওয়ান টেক আছে। হয় হারবেন, নয় জিতবেন। রাজ চক্রবর্তীর সেই দিনই লস গেম শুরু হয়ে গেল যেদিন মঞ্চে দাঁড়িয়ে বলল অর্জুন সিংকে জুতো পেটা করা উচিত। অর্জুন সিং ভিতু আছে। আরে, লড়ছো চন্দ্রমণি শুক্লার সঙ্গে, অর্জুন সিংয়ের নাম নেওয়ার কি আছে? রাজনীতি অত সোজা জিনিস থাকলে সবাই রাজনীতি করত। রাজনীতিতে ওয়ান টেক। হয় পাশ, নয় ফেল।” অর্জুন সিংয়ের মতে, রাজনীতিতে শুধু জয়ীদের পুরস্কার আছে, হারের জন্য কোনও পুরস্কার নেই।

[আরও পড়ুন: ভোটের দিন তারকা প্রার্থীদের ঘিরে ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগান, বিজেপির বিক্ষোভের মুখে রাজ-কৌশানী]

ষষ্ঠ দফাতেই ম্যাজিক ফিগার পার করবে বিজেপি। এমনটাই দাবি করেছেন অর্জুন সিং। দেশের সংখ্যালঘুদের একজোট করলে চার-চারটে পাকিস্তান (Pakistan) তৈরি হয়ে যাবে। বীরভূমের নানুর এলাকার বাসাপাড়ায় ভোট প্রচারে গিয়ে একথাই বলেছিলেন তৃণমূল নেতা (TMC Leader) শেখ আলম। এদিন সেই মন্তব্যের জবাব দিতে গিয়ে অর্জুন সিং বলেন, “জয় শ্রীরাম হয়ে গিয়েছে। তার জন্যই জয় শ্রীরাম আরও বেড়ে গিয়েছে। পাকিস্তান হতে দেব না আমরা। পাকিস্তান ভাবতেও দেব না।”

এবার ভোটে লড়ছেন অর্জুন সিংয়ের ছেলে পবন সিং। ছেলে প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে বিজেপি সাংসদ জানান, পবন নিজের সিদ্ধান্ত নিজেই নিয়েছে। তাঁকে মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে। বারাকপুরের বিজেপি সেনাপতির দাবি, এলাকার তৃণমূল নেতারা তাঁরই ‘চ্যালা’ ছিলেন। কিন্তু যাঁরা ভাল ‘চ্যালা’ হতে পারেনি তাঁরা ‘গুরু’ও হতে পারবে না। ভোটের ক্যালকুলেশন তিনি বোঝেন বলেই দাবি করেন অর্জুন সিং। তার ভিত্তিতেই দাবি করেন, একুশের ভোটে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৩ নম্বরে নেমে যাবেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেই ‘গদ্দার’ পুষছেন বলে দাবি বারাকপুরের বিজেপি সেনাপতির। তৃণমূল নেত্রীকে নবান্ন থেকে সরানোই তাঁর একমাত্র লক্ষ্য বলে জানান অর্জুন সিং।

[আরও পড়ুন: ‘নো ব্রিজ নো ভোট’, বুথে না গিয়ে নদীর ধারে বিক্ষোভ হেমতাবাদের ৩ হাজার ভোটারের ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement